Saturday, 24 June, 2017 | ১০ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
ঈদে নিরাপত্তায় মেট্রোপলিটন পুলিশের আহবান…  » «   কানাইঘাটে পরকীয়া সম্পর্কের জেরে যুবক খুন: মামলা দায়ের  » «   অর্থমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা, সিলেটবাসীর কাছে দু:খ প্রকাশ  » «   গ্যাস সিলিন্ডার: বিস্ফোরনের ঘটনা বাড়ছে, ক্ষুব্ধ সিলেটবাসী  » «   খোয়াই নদীর কূল ধ্বসে দোকান-পাঠ নদীতে বিলীন হচ্ছে  » «   যে কারণে মাধবকুন্ডে পর্যটক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা  » «   দক্ষিণ সুরমায় ৪ জুয়াড়ি আটক  » «   গোলাপগঞ্জে যুবককে কুপিয়ে হত্যা  » «   সিলেটে আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবসে জেলা প্রশাসকের র‌্যালী ও আলোচনা  » «   সিলেটে আ. লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন  » «   সিলেটের ডাক বন্ধে অনলাইন প্রেসক্লাবের উদ্বেগ  » «   বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরে পানিবন্দি দুই লক্ষাধিক মানুষ  » «   গৌরবের ৬৯ বছরে আওয়ামী লীগ  » «   মানে নয়, নামেই গলা কাটছে আড়ং  » «   রথযাত্রা উপলক্ষে সিসিকের ৬ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা অনুদান প্রদান  » «  
Advertisement
Advertisement

লাইসেন্স ছাড়া গভীর নলকূপ স্থাপনে ৭ দিনের জেল

ভূগর্ভস্থ পানি ওঠানোর জন্য লাইসেন্স ছাড়া গভীর নলকূপ স্থাপন করলে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৭ দিনের জেল এ বিধান যুক্ত করে ‘কৃষিকাজে ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবস্থাপনা আইন-২০১৭’-এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছেন মন্ত্রিসভা।

সোমবার জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ১৯৮৫ সালে গ্রাউন্ড ওয়াটার অর্ডিন্যান্স অনুযায়ী এ ভূগর্ভস্থ পানির ব্যবস্থাপনা চলে আসছিল। অডিন্যান্সটিকে হালনাগাদ করে একটি পরিপূর্ণ আইন করা হয়েছে। সচিব বলেন, এ আইনে উপজেলা পরিষদকে ক্ষমতাবান করা হয়েছে। উপজেলা সেচ কমিটি নামে একটি কমিটি করা হয়েছে, যা উপজেলা পরিষদের নির্দেশনায় পরিচালিত হবে। এখানে লাইসেন্সের একটা ব্যবস্থা করা হয়েছে। অর্থাৎ ভূ-গর্ভস্থ পানি কৃষি কাজে ব্যবহারের জন্য লাইসেন্স লাগবে। লাইসেন্স দেবে উপজেলা সেচ কমিটি। এই কমিটি লাইসেন্স দেয়ার আগে কোনো জায়গায় নলকূপ বসানোর প্রয়োজন আছে কিনা তা নির্ধারণ করার জন্য সরেজমিনে পরিদর্শন করে দেখবে। কারণ ভূ-গর্ভস্থ পানি যদি আমরা ব্যবহার করতে থাকি তাহলে এটা পরিবেশ বিপর্যয় ঘটাবে। এটাকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এ আইনে বিধান রাখা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, লাইসেন্স ফি পরবর্তীতে নির্ধারণ করা হবে। বর্তমানে যে নলকূপগুলোর লাইসেন্স নেই সেগুলোকে লাইসেন্স নেয়ার জন্য সময় দেয়া হবে। তবে কেউ লাইসেন্স না নিয়ে গভীর নলকূপ স্থাপন করলে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৭ দিনের জেল দিতে পারবে আদালত। উপজেলা সেচ কমিটি লাইসেন্স স্থগিত কিংবা বাতিল করতে পারবে।লাইসেন্স নিতে কৃষকদের ভোগান্তি বাড়বে কিনা এমন এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এটাতো ১৯৮৫ সাল থেকেই আছে। ওই আইনটাকেই বাংলায় করা হচ্ছে। তবে পুরনো আইনে লাইসেন্সের বিষয়টি ছিল কিনা দেখা হয়নি।
এছাড়া আজকের বৈঠকে বাংলাদেশ চিনি (রাস্তাঘাট উন্নয়ন উপকর) আইন, ২০১৭ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

Developed by: