Saturday, 24 June, 2017 | ১০ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
ঈদে নিরাপত্তায় মেট্রোপলিটন পুলিশের আহবান…  » «   কানাইঘাটে পরকীয়া সম্পর্কের জেরে যুবক খুন: মামলা দায়ের  » «   অর্থমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা, সিলেটবাসীর কাছে দু:খ প্রকাশ  » «   গ্যাস সিলিন্ডার: বিস্ফোরনের ঘটনা বাড়ছে, ক্ষুব্ধ সিলেটবাসী  » «   খোয়াই নদীর কূল ধ্বসে দোকান-পাঠ নদীতে বিলীন হচ্ছে  » «   যে কারণে মাধবকুন্ডে পর্যটক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা  » «   দক্ষিণ সুরমায় ৪ জুয়াড়ি আটক  » «   গোলাপগঞ্জে যুবককে কুপিয়ে হত্যা  » «   সিলেটে আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবসে জেলা প্রশাসকের র‌্যালী ও আলোচনা  » «   সিলেটে আ. লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন  » «   সিলেটের ডাক বন্ধে অনলাইন প্রেসক্লাবের উদ্বেগ  » «   বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরে পানিবন্দি দুই লক্ষাধিক মানুষ  » «   গৌরবের ৬৯ বছরে আওয়ামী লীগ  » «   মানে নয়, নামেই গলা কাটছে আড়ং  » «   রথযাত্রা উপলক্ষে সিসিকের ৬ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা অনুদান প্রদান  » «  
Advertisement
Advertisement

গোয়াইনঘাটে বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে ১০টি গ্রাম পানির নিচে

গোয়াইনঘাট সংবাদদাতা:
গোয়াইনঘাটের পিয়াইন নদীর উজান দিকে জাফলং কান্দু বস্তিতে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে ঐ এলাকার প্রায় ১০টি গ্রাম পানির নিচে তলিয়ে গেছে। উজানে পানির ঢল ও বোমা মেশিনের তান্ডবের কারনে ভেঙ্গে গেছে বেড়িবাঁধ। ব্যাপক ভাঙ্গনে জাফলং এলাকার কয়েকটি গ্রাম পানিবন্দী হয়ে আছে। দীর্ঘ এক যুগ থেকে এ বাঁধ ঐ এলাকাবাসীকে রক্ষা করে আসছে। কিন্তু সম্প্রতি গোয়াইনঘাটে অবৈধ বোমা মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলণের ফলে ঐ বাঁধটি ভেঙ্গে যায় এমনটাই ধারণা বন্যাকবলিত এলাকাবাসীর।
জাফলং নয়াবস্তি, খন্দিবস্তি, জয়রামবস্তি, নয়াগেগের পার, লাখের পার সহ আরো কয়েকটি গ্রামের মানুষ পানিবন্ধি হয়ে আছে। মেম্বার আতাই মিয়া, ছাতকের আলাউদ্দিন, হরিপুরের অয়েছ ও জামাই সুমন গংরা  এ এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে আছে। বেড়িবাঁধের পাশে অবৈধ বোমা মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলনের সময় এলাকাবাসী বাধা দিয়ে তাদের লালিত সন্ত্রাসীবাহিনী দ্বারা মিথ্যা মামলা ভয় ও হুমকি-দমকি দেয়। এতে গ্রামবাসীরা সাহস করে কিছু বলতে পারে না।
গ্রামবাসীর অভিযোগ, রাত্রে আধারে বোমামেশিনের বিকট শব্দে নয়াবস্তিসহ আশপাশের কয়েকটি গ্রাম মানুষ ঘুমাতে পারেনা। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার ব্যাঘাত ঘটছে। এব্যাপারে ডিআইজি, বিভাগীয় কমিশনার, এস.পি, ডিসির কাছে একাধিকবার অভিযোগ করা হলেও এর কোন সুরাহা মেলেনি আজও।

Developed by: