Tuesday, 12 December, 2017 | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
মহীয়ষী নারী রাবেয়া খাতুন চৌধুরী  » «   হবিগঞ্জ থেকে ৫ জেএমবি সদস্য গ্রেফতার  » «   মানবাধিকার রক্ষায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে: মেয়র  » «   ফেঞ্চুগঞ্জ বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে অগ্নিকাণ্ড  » «   সিলেটে মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে রাহাত তরফদারের মামলা  » «   সিসিক নির্বাচনে কারা পাচ্ছেন দলীয় মনোনয়ন  » «   বিয়ানীবাজার জুড়ে চলছে ‘তীর খেলা’ পুলিশের লোক দেখানো অভিযান  » «   লিডিং ইউনিভার্সিটির ছাত্র সাঈম ৬ দিন থেকে নিখোঁজ  » «   হবিগঞ্জে বৃষ্টিতে ইটভাটায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি  » «   শাল্লায় বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   আম্বরখানায় সিএনজি অটোরিকশা ভাংচুর করেছে দুবৃত্তরা  » «   টেস্টে বাংলাদেশের অধিনায়ক সাকিব  » «   মঙ্গলবার সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে ওপেন কনসার্ট  » «   নবীগঞ্জে সরকারী জায়গায় ইলেকট্রনিক্স ইটভাটা নির্মাণ  » «   জকিগঞ্জে সুপারির বাম্পার ফলন  » «  

Advertisement

কানাইঘাটে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

কানাইঘাট প্রতিনিধি: কয়েকদিন ধরে অভিরাম টানা বৃষ্টি এবং উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে কানাইঘাট উপজেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা দেখা দিয়েছে। সুরমা-লোভা সহ অন্যান্য নদ নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার হাওর ও নিম্নাঞ্চলে তলিয়ে গেছে। নিম্নাঞ্চলে তলিয়ে যাওয়ায় আমন ধানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। কয়েকশ হেক্টর আমন ধান একেবারে বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। কানাইঘাট সুরমা নদীর পানি শনিবার বিকেল ৪টার রিপোর্ট অনুযায়ী বিপদ সীমার ১১৬ সে. মি. এর উপর দিয়ে প্রবাহিতহচ্ছে। সুরমা নদীর ডালাইচর, গৌরিপুর, বায়মপুর, লক্ষীপুর সহ উপজেলার সুরমার তীরবর্তী বিভিন্ন ডাইক ভেঙ্গে যে কোন সময় তলিয়ে যেতে পারে উপজেলার বেশির ভাগ এলাকা।

সুরমা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নদীর তীরবর্তী এলাকার লোকজন তাদের বাড়ী ঘরে আতংকের মধ্যে রয়েছেন। নিম্নাঞ্চলে কয়েক হাজার মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছেন। ৫নং বড়চতুল ইউপি চেয়ারম্যান মাও. আবুল হোসেন সহ বেশ কয়েকজন চেয়ারম্যান জানিয়েছেন তাদের ইউপির অনেক বসত বাড়ীতে পানি ডুকে পড়েছে, সুরমা ডাইকে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। আমন ধানের হাওর ও অনেক
ক্ষেতের মাঠ বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় আমন ধানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সচিব প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শীর্ষেন্দু পুরকায়স্থের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টিপাতের ফলে উপজেলার হাওর অঞ্চল বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে গেছে। তবে বন্ যার মতো পরিস্থিতি এখনও সৃষ্টি হয়নি। উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে। বন্যা দেখা দিলে দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণেরও ব্যবস্থা রয়েছে।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: