Monday, 20 November, 2017 | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
মৌলভীবাজারের ৫ আসামির রায় যেকোনো দিন  » «   নেতাকর্মীর ‘কদর’ বাড়ছে মেয়র পদপ্রার্থীর কাছে  » «   খাজাঞ্চিবাড়ি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষিকা শম্পা চক্রবর্তীর জাল সনদ: তোলপাড়  » «   কান থেকে ডিভাইস পড়ে ধরা খেলেন শাবিতে ভর্তিচ্ছু দুই শিক্ষার্থী!  » «   শাহজালালের মাজারের কুপের পানিকে জমজমের পানি বলে প্রতারণা: তদন্তের নির্দেশ আদালতের  » «   মৌলভীবাজারে অবাধে চলছে পাহাড় কাটা  » «   কিংবদন্তি নেতা দেওয়ান ফরিদ গাজী  » «   নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে:জেলা প্রশাসক  » «   আম্বরখানায় ছাত্রলীগ ও অটোরিক্সা শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ, অবরোধ  » «   সম্মানিত হয়েছে ইউনেস্কো : ড. জাফর ইকবাল  » «   সিলেট মহানগর বিএনপির আনন্দ সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «   খাদিমপাড়ায় টিলাকাটার অভিযোগে একজনকে দুইলক্ষ টাকা জরিমানা  » «   জৈন্তাপুরে বেকারদের জন্য ন্যাশনাল সার্ভিস চালু  » «   এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে আগুন: ২৯ ছাত্রলীগ নেতাকর্মী জড়িত  » «   ওসমানী মেডিকেলের ইর্মাজেন্সী গেইটে অটোরিক্সা ভাংচুর  » «  

 

Advertisement
Advertisement

সিদ্দিকুরের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দৈনিকসিলেটডেস্ক: পুলিশের টিয়ারশেলের চোখ হারানো তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর রহমানের হাতে অ্যাসেনশিয়াল ড্রাগসে চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।
বুধবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী দেশের একমাত্র ওষুধ উৎপাদনকারি সরকারি প্রতিষ্ঠান অ্যাসেনশিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেডে (ইডিসিএল) টেলিফোন অপারেটর হিসেবে চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেন।
আগামী ১ অক্টোবর থেকে ইডিসিএলে টেলিফোন অপারেটর হিসেবে কাজ করবেন সিদ্দিকুর। প্রাথমিকভাবে তিনি ১৩ হাজার টাকা মূল বেতন ও অন্যান্য সুবিধাদি পাবেন। এক বছর পর চাকরি স্থায়ী হলে ২৩ হাজার টাকা মূল বেতন ও অন্যান্য সুবিধাদি পাবেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম তা বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছি। পুলিশের টিয়ারশেলে মেধাবী শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর দু’চোখের দৃষ্টি শক্তি হারিয়েছেন। আমি যখন সিদ্দিকুরকে দেখতে যাই তখনই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম ওর চোখ ভালো হোক আর না হোক অ্যাসেনশিয়াল ড্রাগসে চাকরি দেব।

তিনি বলেন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক সিদ্দিকুরের ইন্টারভিউ নিয়েছেন। যেহেতু চোখ নেই কাজ করতে সমস্যা হবে, তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি টেলিফোন অপারেটর পদে তাকে চাকরি দেয়া হবে। সঙ্গে সঙ্গে তার লেখাপড়াও চলবে।
চোখে না দেখলেও সে কাজ করতে পারবে, আমার মনে হয় এটা উপযুক্ত চাকরিই হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন নাসিম।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আমরা সবাই খুশি যে তার জন্য একটি কাজ করতে পেরেছি। এটা বেদনার মধ্যেও একটু স্বস্তি আর কি। সিদ্দিকের ও তার পরিবারের জন্য আমাদের সহানুভূতি আছে।
সিদ্দিকুর রহমান বলেন, সবাইকে ধন্যবাদ। শুরু থেকে সরকার আমরা পক্ষে ছিল। স্বাস্থ্যমন্ত্রী আমার সার্বক্ষণিক খোঁজখবর নিয়েছেন। মিডিয়াকেও আমি বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাই, তারা সবসময় আমাকে সাপোর্ট দিয়েছে। আমার কলেজের অধ্যক্ষ ও শিক্ষকরাও আমার পাশে ছিলেন।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধীন সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের সার্বিক সফলতা কামনা করে সিদ্দিকুর বলেন, তারা যাতে ভালো অবস্থানে যেতে পারে। এ কলেজগুলোর শিক্ষা কার্যক্রম যাতে স্বাভাবিক থাকে। আমি সবার জন্য দোয়া করি, কাউকে যেন আমার মতো দুর্ঘটনায় না পড়তে হয়।
বড় কিছু করার স্বপ্ন, এরপর চোখ হারিয়ে এই চাকরি- আপনার প্রতিক্রিয়া কি জানতে চাইলে সিদ্দিকুর বলেন, আমি আমার স্বপ্ন থেকে পিছিয়ে আসিনি। আমি আমার স্বপ্নের পেছনো দৌড়াব।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত রাজধানীর সাতটি সরকারি কলেজের পরীক্ষার তারিখ ঘোষণার দাবিতে শাহবাগে আন্দোলনের সময় গত ২০ জুলাই পুলিশের টিয়ারশেলের আঘাতে চোখে গুরুতর আঘাত পান সিদ্দিকুর রহমান। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারতের চেন্নাইয়ে পাঠানো হয়।
চেন্নাইয়ের শঙ্কর নেত্রালয়ের চিকিৎসকরা চোখ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ভালো না হওয়ার কথা জানালে সিদ্দিকুর রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. সিরাজুল হক খান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, ইডিসিএল-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক ডা. এহসানুল কবির উপস্থিত ছিলেন।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: