Thursday, 20 September, 2018 | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

উকুন যেভাবে তাড়াবেন

দৈনিকসিলেটডেস্ক:নারী কিংবা পুরুষ সবার মাথাতেই চুল থাকে। চুল সৌন্দর্যের অন্যতম অংশ। চুলে যদি কোনোভাবে উকুনের আক্রমণ দেখা দেয় তখন সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। একটু পর পর মাথা চুলকায়, যেখানে-সেখানে গেলে ঘনিষ্ঠ মানুষরাও বিরক্তবোধ করেন। সব মিলিয়ে মাথায় উকুনের আক্রমণ আসলে খুব লজ্জাজনক ব্যাপার। চুলের যত্ন নিয়ে, উকুননাশক সাবান, শ্যাম্পু ব্যবহার করেও কোনো উপকারিতা পাওয়া যায় না।

নিমপাতার গুণাগুণ সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। নিমপাতা বিশেষ করে প্রাকৃতিক উপায়ে রোগ চিকিৎসা, ইউনানী, হোমিওপেথিক চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয়। বহুগুণের এই নিমে আছে- অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিভাইরাস, এনালেজিক, অ্যান্টিপাইরেটিক, অ্যান্টিসেপ্টিক, অ্যান্টিমাইক্রবাল, অ্যান্টিডায়াবেটিক, অ্যান্টিফাঙ্গাল এবং রক্ত বিশুদ্ধকরণ উপাদান।

নিমের এই বিশেষ উপাদানগুলো দেহের বিভিন্ন রোগ নিয়ন্ত্রণ করে, নানা ধরনের রোগ হওয়ার লক্ষণগুলো উপশম করে। এই সামান্য পাতার মধ্যে যখন এতো গুণ রয়েছে, উকুন সমস্যা রোধ করার মতোও ক্ষমতা এই নিম পাতায় আছে।

উকুন রোধ করতে যা করবেন

২০১২ সালে প্যারাসাইটলজি নামের একটি জার্নালে বলা হয় যে, নিমের বীজ মাথার উকুন রোধ করতে উপকারী। নিম, মাথার স্কাল্প এর জ্বালাপোড়া ও চুলকানিও রোধ করে।

* সপ্তাহে ২/৩ বার হার্বাল যে কোনো শ্যাম্পু যাতে নিমের ব্যবহার রয়েছে তা দিয়ে মাথা ভালো করে ধুয়ে উকুননাশক চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়াতে হবে।

* নিমপাতা বেটে সরাসরি মাথার স্কাল্পে লাগিয়ে নিন। না শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এরপর উকুননাশক চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে নিন। উকুন পুরোপুরি রোধ না হওয়া পর্যন্ত প্রতি মাসে ২/৩ বার এই উপায় অনুসরণ করুন।

* আপানার চুল ও স্কাল্পে নিম অয়েল ভালোমতো ম্যাসেজ করুন। এরপর উকুননাশক চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়িয়ে নিন উকুন রোধ করার জন্য। নিম অয়েল ম্যাসেজ করার পর ঘণ্টা খানেক মাথায় রাখতে পারেন বা সারারাতও রাখতে পারেন। পরের দিন সকালে চুল শ্যাম্পু করে ফেলুন।

লেখক : হারবাল গবেষক ও চিকিৎসক, মর্ডান হারবাল গ্রুপ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: