Wednesday, 22 November, 2017 | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
জগন্নাথপুরে গুলি, কার্তুজসহ ২ অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রেফতার  » «   ‘আনন্দ শোভাযাত্রা’ সফলের লক্ষে জেলা প্রশাসনের মতবিনিময় সভা  » «   নবীগঞ্জে ৩ সন্তানের জননীকে পিটিয়ে হত্যা ॥ আহত ২  » «   আ’লীগ নেতা বিজিত চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা  » «   ‘তারেক রহমানের নাম’ আবারো ভুল করলেন মেয়র আরিফ!  » «   সুরমা নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনায় সিসিকের উচ্ছেদ অভিযান  » «   ‘স্প্রে পার্টি’ এখন সিলেটে, সাবধান…  » «   আজ জকিগঞ্জ শত্রু মুক্ত দিবস: রাষ্টীয় স্বীকৃতির দাবী  » «   ‘একটি কুচক্রী মহল আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে’  » «   প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণায় শায়েস্তাগঞ্জে উৎসবের আমেজ  » «   এমপি সেলিম উদ্দিনের রোষানলে ট্রাফিক পুলিশ!(ভিডিও সহ)  » «   সিসিকের গাড়ি কেলেংকারী : আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন  » «   মৌলভীবাজারের ৫ আসামির রায় যেকোনো দিন  » «   নেতাকর্মীর ‘কদর’ বাড়ছে মেয়র পদপ্রার্থীর কাছে  » «   খাজাঞ্চিবাড়ি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষিকা শম্পা চক্রবর্তীর জাল সনদ: তোলপাড়  » «  

 

Advertisement
Advertisement

‘পেশাগত দক্ষতা প্রদর্শনে বাংলাদেশের শান্তিরক্ষীরা সবসময় এগিয়ে’

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক থেকে : জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের মিলিটারি এ্যাডভাইজর লেফটেন্যান্ট জেনারেল কার্লোস হামবার্টো লইটি (Lieutenant General Carlos Humberto Loitey)বাংলাদেশের শান্তিরক্ষীদের ভ’মিকার প্রশংসা করে বলেছেন, ‘পেশাগত দক্ষতা প্রদর্শনে বাংলাদেশের শান্তিরক্ষীরা সবসময় এগিয়ে রয়েছেন। দাঙ্গা-হাঙ্গামার নিরসনের পাশাপাশি ঐসব দেশে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রেও তারা অসাধারণ ভূমিকা পালন করছেন।’
নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দফতরে ১৩ নভেম্বর সোমবার সকালে বাংলাদেশের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো: মোজাম্মেল হক খানের নেতৃত্বে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর সমন্বয়ে পাঁচ সদস্যের উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল কার্লোস হামবার্টো লইটির সাথে এক বৈঠকে মিলিত হন।
হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে মিলিটারি এ্যাডভাইজর লইটি সম্প্রতি জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ দ্বিতীয় শীর্ষ অবস্থানে উন্নীত হওয়ায় অভিনন্দন জানান। তিনি আলাপকালে শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশের অব্যাহত ও সাফল্যমন্ডিত ভূমিকার কথা উল্লেখ করেন এবং বিভিন্ন মিশনে কর্মরত বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীদের পেশাগত দক্ষতা ও নিবেদিত দায়িত্বপালনের প্রশংসা করেন।
লইটি আশা করেন আগামী দিনগুলোতেও বাংলাদেশের এই ভূমিকা অব্যাহত থাকবে ও উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাবে। শান্তিরক্ষীদের নিরাপত্তা রক্ষার বিষয়টি জাতিসংঘের প্রাধিকারভুক্ত মর্মেও তিনি উল্লেখ করেন।

সিনিয়র সচিব ড. মো: মোজাম্মেল হক খান বিশ্ব শান্তি রক্ষায় বাংলাদেশের প্রতিশ্রুতির কথা পুনর্ব্যক্ত করে বলেন, ‘জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ সবসময়ই তার অগ্রণী ভূমিকা অব্যাহত রাখবে এবং নিবেদিতভাবে কাজ করে যাবে।’
তিনি বিভিন্ন শান্তিরক্ষা মিশনে দায়িত্বরত বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীদের নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে মিলিটারি এ্যাডভাইজরকে অনুরোধ জানান।

সিনিয়র সচিব জানান পরিবর্তনশীল শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের সাথে সামঞ্জস্য রেখে বাংলাদেশ তার শান্তিরক্ষীদের সার্বিক দক্ষতা ও দ্রুত মোতায়েনের সামর্থ্য বৃদ্ধির বিষয়টিতে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে এবং নারী শান্তিরক্ষীদের সংখ্যা বৃদ্ধির জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।
এ বৈঠকে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশের অংশগ্রহণসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়। বৈঠককালে সিনিয়র সচিব মিলিটারি এ্যাডভাইজরকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান এবং এ সংক্রান্ত একটি আমন্ত্রণপত্র হস্তান্তর করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জালাল আহমেদ, জাতিসংঘে বাংলাদেশের উপ-স্থায়ী প্রতিনিধি তারেক মো: আরিফুল ইসলাম ও বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর এয়ার কমোডর মোহাম্মদ বেলাল।
বৈঠকের উদ্ধৃতি দিয়ে এয়ার কমোডর মোহাম্মদ বেলাল এ সংবাদদাতাকে জানান, ‘১২ নভেম্বর নিউইয়র্কে আসার আগে আমরা কঙ্গো শান্তিরক্ষা মিশন পরিদর্শন করেছি। সেখানে দায়িত্ব পালনে কী কী সমস্যা এবং চ্যালেঞ্জ রয়েছে, তা সবিস্তারে অবহিত করেছি মিলিটারি এডভাইজরকে। অর্পিত দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে পালনের স্বার্থেই সমস্যা সমূহের সমাধানের উদ্যোগে নিলে বাংলাদেশও সাধ্যমত সহায়তা দিয়ে যাবে বলে উল্লেখ করেছি।’ মোহাম্মদ বেলাল উল্লেখ করেন, ‘সময়ের সাথে সঙ্গতি রেখে চ্যালেঞ্জের গতি-প্রকৃতিতেও পরিবর্তন ঘটছে। সেদিকে খেয়াল রেখেই শান্তিরক্ষা মিশন পরিচালনায় সম্মিলিত প্রক্রিয়া অবলম্বন করা দরকার বলেও জানিয়েছি তাকে।’

উল্লেখ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো: মোজাম্মেল হক খানের নেতৃত্বে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর সদস্যসহ পাঁচ সদস্যের উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল ইতোমধ্যে ‘গণপ্রজাতন্ত্রী কঙ্গো’তে নিয়োজিত বাংলাদেশী শান্তিরক্ষী কন্টিনজেন্ট পরিচালিত বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। এ সফরের অংশ হিসেবে তাঁরা জাতিসংঘ সদর দপ্তরে শান্তিরক্ষা কার্যক্রম সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে মতবিনিময় করেন।

এদিন দুপুরে সিনিয়র সচিব ড. মো: মোজাম্মেল হক খান জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশন পরিদর্শন এবং জাতিসংঘে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে মিশনের কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময়কালে সাম্প্রতিক মিয়ানমার সঙ্কট মোকাবিলায় মিশন গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের বিষয়ে সিনিয়র সচিবকে অবহিত করা হয়। এছাড়া শান্তিরক্ষা কার্যক্রম ও জাতিসংঘের বিভিন্ন কমিটির আওতায় মিশনের অংশগ্রহণ ও ভূমিকার বিষয়েও বিস্তারিত তুলে ধরা হয়। জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: