Wednesday, 22 November, 2017 | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
জগন্নাথপুরে গুলি, কার্তুজসহ ২ অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রেফতার  » «   ‘আনন্দ শোভাযাত্রা’ সফলের লক্ষে জেলা প্রশাসনের মতবিনিময় সভা  » «   নবীগঞ্জে ৩ সন্তানের জননীকে পিটিয়ে হত্যা ॥ আহত ২  » «   আ’লীগ নেতা বিজিত চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা  » «   ‘তারেক রহমানের নাম’ আবারো ভুল করলেন মেয়র আরিফ!  » «   সুরমা নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনায় সিসিকের উচ্ছেদ অভিযান  » «   ‘স্প্রে পার্টি’ এখন সিলেটে, সাবধান…  » «   আজ জকিগঞ্জ শত্রু মুক্ত দিবস: রাষ্টীয় স্বীকৃতির দাবী  » «   ‘একটি কুচক্রী মহল আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে’  » «   প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণায় শায়েস্তাগঞ্জে উৎসবের আমেজ  » «   এমপি সেলিম উদ্দিনের রোষানলে ট্রাফিক পুলিশ!(ভিডিও সহ)  » «   সিসিকের গাড়ি কেলেংকারী : আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন  » «   মৌলভীবাজারের ৫ আসামির রায় যেকোনো দিন  » «   নেতাকর্মীর ‘কদর’ বাড়ছে মেয়র পদপ্রার্থীর কাছে  » «   খাজাঞ্চিবাড়ি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষিকা শম্পা চক্রবর্তীর জাল সনদ: তোলপাড়  » «  

 

Advertisement
Advertisement

শাহিদা শিকদার-সিলেটের এক সফল নারী উদ্যোক্তা

দৈনিকসিলেটডটকম:সিলেটের এক সফল নারী উদ্যোক্তা শাহিদা শিকদার। যিনি একজন নারী হয়ে সাহসিকতার সাথে ব্যক্তিগত উদ্যোগে হিজড়া জনগোষ্ঠির জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তার এসব কার্যক্রম গোটা নারী সমাজের জন্য দৃষ্টান্তমূলক। তাঁর এ মহত ও সাহসী উদ্যোগের জন্য গোটা নারী সমাজের চোখে একজন আলোকিত নারী হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছেন। পিঁছিয়ে পড়া হিজড়া জনগোষ্ঠির আশা-ভরসারস্থল শাহিদা শিকদার। তিনি পিঁছিয়ে পড়া হিজড়া জনগোষ্ঠির এক অনুপ্রেরনা। তাঁর গৃহিত বিভিন্ন কার্যক্রম সরকারী ও বেসরকারী ভাবে বাস্তবায়িত হয়ে সমাজের অন্যান্য ব্যক্তি এবং প্রতিষ্টানকে এসব কাজে এগিয়ে আসার জন্য প্রেরনা যুগিয়েছে।
শাহিদা শিকদার ২০১৭ সাল থেকে অসহায় অদক্ষ বেকার মহিলাদের প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থানের জন্য কাজ শুরু করেন। তিনি মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর সিলেট হতে রেজিষ্ট্রেশন নারী উদ্যোগ কল্যাণ সমিতির সভানেত্রী এবং যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের তালিকাভূক্ত সমিতিরি সভানেত্রী। তিনি সর্বপ্রথম ১০ জন মহিলা নিয়ে নিয়ে সিলেট কাজ শুরু করেন। বর্তমানে প্রায় দুশ মহিলা তার প্রতিষ্ঠানের আওতায় সেলাই ও হস্তশিল্পের কাজ করছে এবং তার কাছ থেকে প্রশিক্ষন নিয়ে অনেক মহিলা জীবন মান উন্নয়নে সফল হচ্ছে। তিনি প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়ে মহিলাদের প্রশিক্ষণ দেন এবং প্রশিক্ষিত করে তাদের আত্মনির্ভরশীল কর্মী হিসেবে গড়ে তুলেন। তিনি বেকার যুব মহিলাদের জীবনমান উন্নয়নে অগ্রনী ভূমিকা পালন করেন।
তিনি গত প্রায় ৪ বছর ধরে অনগ্রসর ও অবহেলিত হিজড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে আন্তরিকতার সাথে করে যাচ্ছেন। জেলাপ প্রশাসন সমাজসেবক অদিদপ্তর ও নারী উদ্যোগ কল্যাণ সমিতির যৌথ উদ্যোগে হিজড়াদের জীবনমান উন্নয়নে বিভিন্ন ট্রেডের উপর তাদেরকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন। হিজড়াদের প্রশিক্ষণের পাশপাশি তাদেরকে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থাসহ তাদেরকে মনো সামাজিক কাউন্সিলিং দিচ্ছেন, যাতে তারা তাদের গতানুগতিক পেশা ছেড়ে সমাজের মূল স্রোতধারায় ফিরে আসতে পারে। তিনি হিজড়াদের কে রান্নার প্রশিক্ষনে শিখিয়েছেন সিঙ্গারা, সমুচা, ব্রেড টোস্টা, পাফোচা, বিভিন্ন রোল চপ কাটলেট, বিভিন্ন পিঠাসহ অনেক কিছু। তাদের এসব তৈরি খাবার বিক্রির জন্য জেলা পরিষদ হতে তার প্রতিষ্ঠানে একটি ভ্যান প্রদান করা হয়। তারপর শাহিদা শিকদারের ত্রিজ উদ্যোগে ব্যবস্থা করা হয় আর একটি ভ্যান। তাদের প্রস্তুতকৃত খাবার সরবরাহ করা হয়। সরকালী সেরকারী প্রতিস্টানে জেলা প্রশাসন জেলা পরিষদ সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রোগ্রামে সরবরাহ করা এসব খাবার খুবই চাহিদা সমৃদ্ধ। যেসব হিজড়ারা সেলাই কাজ শিখেছেন তাদের জন্য টেইলারিং শপের ব্যবস্থার কাজ চলছে।
একসময় সিলেটের বিভিন্ন স্থানে হিজড়াদের পথে পথে যত্রতত্র চাদাবাজি করতে দেখা যেত। তারা সাধারনত বিভিন্ন বিয়ে সাধিতে নাচ, গান করে টাকা রোজগার করত। রাস্তার ঘাটে বিভিন্ন জনের কাছে চাদা দাবী করে অনেকে বিব্রত করে তুলতো। কিন্তু বর্তমানে হিজড়াগন শাহিদা শিকদারের প্রশিক্ষন ও প্রশিক্ষনের দ্বারা অনুপ্রানিত হয়ে বিভিন্ন পেশার সাথে জড়িত হয়েছে। শাহিদা শিকদার তাদেরকে প্রশিক্ষিত করে তাদের পন্যদ্রব্য মার্কেটে নিয়ে যাওয়া পর্যন্ত কাজ করে যাচ্ছেন। বিভিন্ন সময় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সরকারী ও বেসরকারী ভাবে যে সকল মেলার আয়োজন করা হয় তাতে হিজড়া জনগোষ্ঠির উৎপাদিত পণ্যের স্টল দেখা যায়। তিনি ২১০ জনের হিজড়াকে সেলাই রান্না ও হস্ত শিল্পের প্রশিক্ষণ দিয়েছেন। তিনি ৪০ জনের উপরে হিজড়াদের কাজের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। সকল ভয়-ভীতিকে জয় করে সমাজের অবহেলিত হিজড়াদের নিকটে গিয়ে তাদের আবেগ অনুভুতি বুঝতে সক্ষম হয়েছেন। তারই ফলশ্র“তিতে নিজেকে উন্নত মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছেন। হিজড়াদের ভয়ে যেখানে পুলিশ ও তাদের কাছে যেতে সাহস পায়না সেখানে শাহিদা শিকদার একজন নারী হয়ে মায়ের আদর দিয়ে তাদের কাছে টেনে নতুন করে বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখিয়েছেন। তার দেখানো স্বপ্নের অনুসরনে আজ অনেক হিজড়া স্বাবলম্বী হয়ে মাথা উচু করে সমাজে কথা বলার সাহস পেয়েছে। আর এসব কৃতিত্বের একমাত্র দাবীদার শাহিদা শিকদার। যিনি গোটা হিজড়া জনগোষ্ঠির কাছে এক মহিয়সী নারী। নারীরাই পারে অসাধ্যকে সাধন করতে। যার সফল উদাহারণ শাহিদা শিকদার।
আলাপকালে নারী উদ্যোক্তা শাহিদা শিকদার জানান, মানুষ বাঁচে কর্মের মধ্যে। যে কর্ম যুগ থেকে যুগান্তরে মানুষকে বেঁচে থাকার প্রেরনা যোগায়। আমি তাদের অংশীদার হয়ে অবহেলিত জনগোষ্ঠি হিজড়াদের ঐক্যবদ্ধ করে প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে প্রতিটি হিজড়া সদস্যকে একটি প্রশিক্ষিত জনগোষ্ঠিতে পরিনত করতে আপ্রাণ চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছি। ইতিমধ্যে সরকারী উদ্যোগে সিলেটের শতাধিক হিজড়াদের প্রশিক্ষণ প্রদান শেষে তাদেরকে স্বাবলম্বী করা হয়েছে। যারা আজ নতুন করে বেঁচে থাকার সুযোগ পেয়েছে।
শাহিদা শিকদারের অদম্য ইচ্ছা ও অনুভূতি গোটা হিজড়া জনগোষ্ঠিকে নিয়ে। তিনি তাদেরকে নিয়েই বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখেন। তিনি আগামীর স্বপ্ন বাস্তবায়নে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: