Saturday, 24 February, 2018 | ১২ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

Advertisement

চট্টগ্রামে আমির খসরুর বাসায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত, কিন্তু কেন?

চট্টগ্রাম: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর বাসায় গিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা স্টিফেন ব্লুম বার্নিকাট। প্রায় ৩ ঘন্টার বেশী সময় অবস্থান শেষে রাত ১০টা ১০ মিনিটে আমীর খসরু’র বাসা ছেড়ে যান মার্কিন রাষ্ট্রদূত।

মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় নগরীর মেহেদীবাগে আমীর খসরুর বাসায় যান বার্নিকাট। সেখানে রাতের খাবার গ্রহণ করেন। আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর পারিবারিক সূত্র জানায়, রাতের খাবারের দাওয়াত ছিল বার্নিকাটের।

আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর পারিবারিক সূত্রে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। তবে কী বিষয়ে কথা হয়েছে তা জানাতে পারেননি সূত্র। বার্নিকাট চট্টগ্রাম চেম্বারে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

বাসায় পৌঁছলে মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে স্বাগত জানান আমীর খসরু। পরে তারা বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করে। ৩০ মিনিট আলোচনার পর রাতের খাবারে অংশ নেন বার্নিকাট। এই বৈঠকের শেষের দিকে যোগ দেন নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর।

এর আগে চট্টগ্রাম বন্দর পরিদর্শন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। মেয়র রাষ্ট্রদূতকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, গুরুত্বের দিক থেকে চট্টগ্রাম একটি গুরুত্বপূর্ণ নগরী। চট্টগ্রামে সমুদ্রবন্দরসহ ব্যবসা-বাণিজ্যের অপার সম্ভাবনা রয়েছে।

অনুষ্ঠিত বৈঠকে কি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে হয়েছে সাংবাদিকেদের এমন প্রশ্নের জবাবে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, এটি উনার ব্যাক্তিগত ভিজিট ছিল। এর পরও আমাদের মধ্যে দেশের বর্তমান পরিস্থিতি, রাজনৈতিক বিষয় এবং আগামী নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

আমীর খসরু বলেন, আগামী নির্বাচন নিয়ে আমেরিকা সরকার কনসার্নড। তারাও সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চায়। আমরা বলেছি সুষ্ঠু নির্বাচন না হলে দেশের জনগণ তা মেনে নেবে না।

এ সময় নগর বিএনপির সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান, মো. শামসুল আলম, সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য মাহবুবুর রহমান শামীম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, বিশ্বের প্রভাবশালী দু’টি দেশের গুরুত্বপূর্ণ দুই ব্যক্তি একই সময়ে চট্টগ্রামে। বিষয়টি ছিল টক অব দ্যা টাউন, শুধু তাই নয় প্রথমে তারা নগরীর পাঁচ তারকা হোটেল রেডিসন ব্লু চিটাগাং বে ভিউতে অবস্থান নেন। তাদের একজন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি। দ্বিতীয় জন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা স্টিফেন ব্লুম বার্নিকাট। আগমনের কারণটা প্রকাশ্যে ভিন্ন হলেও সবার আগ্রহ ছিল এই দিকে। ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের নেতৃত্বদানকারী মাস্টার দা সূর্য সেনের স্মৃতি বিজড়িত স্থান ঘুরে দেখা এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার উদ্দেশ্যেই মূলত প্রণব মুখার্জি চট্টগ্রাম এসেছেন। অন্যদিকে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বার্নিকাট চিটাগাং চেম্বার অব কমার্সের একটি অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হয়ে এসেছেন । তা সত্ত্বেও বর্তমান সরকারের প্রতি বন্ধু ভাবাপন্ন দুটি দেশের দুই গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির কাছাকাছি অবস্থান যথেষ্ট ইঙ্গিতপূর্ণ বলেই মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রামের সুধী সমাজ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলোর ধারণা এই অঞ্চলে কৌশলগত অবস্থানে একই মেরুতে থাকা দুই প্রভাবশালী দেশের দুই গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির কাছাকাছি অবস্থান খুবই ইঙ্গিতবহ। বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন, উভয় দেশের স্বার্থের সমন্বয় সম্পর্কিত বিষয়াদি এই মুহূর্তে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের জন্য তাৎপর্যমণ্ডিত।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: