Saturday, 24 February, 2018 | ১২ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

Advertisement

ন্যান্‌সির নতুন খবর

দৈনিকসিলেটডেস্ক:বর্তমানে গান নিয়ে টানা ব্যস্ততায় সময় কাটছে জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্‌সির। গত বছর শো কম করলেও চলতি বছরের জানুয়ারিতে অনেকটা নিয়মিতই স্টেজ শো নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। শুধু তাই নয়, নিজের শো-র ভিডিওগুলো তিনি আপলোড করছেন নিজের ফেসবুক পেজেও। সব মিলিয়ে বছরের শুরুতে এ জনপ্রিয় সংগীত তারকা শো নিয়েই ব্যস্ত। এর বাইরে চলচ্চিত্রের বেশ কিছু গান নিয়েও ব্যস্ত এ শিল্পী। এদিকে গেল বছরে হাবিব ওয়াহিদের সঙ্গে দুটি গান প্রকাশ হয়েছে ন্যান্‌সির।
সেই গানগুলো বেশ প্রশংসিতও হয়েছে শ্রোতামহলে। এদিকে নতুন বছরের পরিকল্পনা প্রসঙ্গে ন্যান্‌সি বলেন, ভক্তদের জন্য একটি সুসংবাদ আছে। একক অ্যালবামের কাজ শুরু হবে। সাউন্ডটেকের ব্যানারে এ গানগুলোর কথা লিখছেন আহমেদ রিজভী। আর গানগুলোর সুর ও সংগীতায়োজন করবেন অনেকে। আশা করছি ভালোবাসা দিবস অথবা পহেলা বৈশাখে গানগুলো শ্রোতাদের হাতে তুলে দিতে পারবো। এ বিষয়ে ন্যান্‌সি আরও বলেন, গত বছর নতুন গান খুব বেশি করিনি। হাতেগোনা কয়েকটি গানই করেছি। তাছাড়া শোও তেমন করিনি। তবে নতুন বছরের শুরুতেই ভালো শো হচ্ছে। তাছাড়া নতুন গানের পরিকল্পনাও হচ্ছে। এ অ্যালবামের বাইরে চলচ্চিত্রের আরও কিছু গানের কাজ নিয়ে কথাবার্তা চলছে। ব্যাটে বলে মিললে করে ফেলবো। চলতি সময়ের প্লেব্যাকে নারী কণ্ঠশিল্পীর মধ্যে আপনাকে সেরা ধরা হয়। সেই তুলনায় কাজ কি কম করছেন না? ন্যান্‌সি বলেন, প্রথমত হলো আমি নিজেকে রেকর্ডিংয়ের শিল্পীই বেশি মনে করি। কারণ অ্যালবাম ও প্লেব্যাকের টাকা দিয়েই আমি আমার বাড়ি করেছি। এখনও চলছে। স্টেজ আমি খুব কম করি। আর গত বছর কিন্তু সবার কাজই তুলনামূলক কম ছিল। আমাকে অনেকে সিঙ্গেলে করার প্রস্তাব করেছে। আমি করিনি। সিঙ্গেলে আমি বিশ্বাসী নই। প্রতিনিয়ত সিঙ্গেলের অনেক প্রস্তাব থাকে। আর ঐ যে বললেন সেরা ধরা হয় প্লেব্যাকে আমাকে, এটা আমি মনে করি না। কারণ আমি মনে করি সব দিক দিয়ে কনা এখন অনেক ভালো করছে। গত বছরও কনার গানই সব জায়গায় বাজতে শুনেছি। আমি মনে করি নারী শিল্পীদের মধ্যে কনাই এখন ভালো অবস্থানে রয়েছে।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: