Saturday, 24 February, 2018 | ১২ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

Advertisement

টাকার বিছানা!

দৈনিকসিলেটডেস্ক:‘ভারতের উত্তর প্রদেশের একটি বাড়ি থেকে বাতিলকৃত নোটের কোটি কোটি রুপি (টাকা) ‍উদ্ধার করা হয়েছে। নোটগুলো সাজিয়ে রাখা ছিল, যা দেখে মনে হয় সত্যিই টাকার বিছানা।

উত্তর প্রদেশের কানপুরের ওই বাড়িতে মঙ্গলবার পাওয়া নোটগুলো মধ্যরাতে গণনা শুরু করেন পুলিশ সদস্যরা এবং বুধবার সকাল পর্যন্ত গণনার পর পরিমাণ দাঁড়ায় ৯৭ কোটি রুপি (১ রুপি সমান ১ দশমিক ৩০ টাকা)। এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, তখনো গণনা শেষ হয়নি, ফলে মোট টাকার পরিমাণ আরো বাড়বে।

গোপন সূত্রে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাতে রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া ও আয়কর বিভাগের সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থা ও পুলিশ প্রথমে কানপুরে একটি হোটেলে অভিযান চালিয়ে কয়েকজনকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের পর পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাদের মধ্যে অশোক খাত্রি নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে বিপুল পরিমাণ বাতিলকৃত নোট খুঁজে পায় তারা।

ওই বাড়িতে বিছানার মতো সাজিয়ে রাখা নোটগুলো ৫০০ ও ১০০০ রুপির। গত বছর নভেম্বর মাসে এসব নোট বাতিল করে ভারত সরকার।

পুলিশ বলছে, এই অর্থ একজনের নয়, একটি দলের। অশোক খাত্রির ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা পাচারের জন্য নোটগুলো লুকিয়ে রেখেছিল বলে তারা ধারণা করছে।

উত্তর প্রদেশ পুলিশের ভারপ্রাপ্ত প্রধান আনন্দ কুমার বলেছেন, আমাকে বলা হয়েছে তিনি একজন ব্যবসায়ী। কিন্তু দেখা যাচ্ছে তিনি এ ধরনের অবৈধ কাজের সঙ্গে জড়িত। এ পর্যন্ত ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এসব নোট কীভাবে তারা পেয়েছে, সে বিষয়ে আমরা তথ্য সংগ্রহ করছি।

জাতীয় তদন্ত সংস্থার এক কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে বার্তা সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, এই অর্থের মালিক চার-পাঁচ জন ব্যক্তি বা কোম্পানি। একটি ডিটারজেন্ট প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের প্রভাবশালী এক মালিকও এর সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন।

পুলিশের সূত্র জানিয়েছে, এ ঘটনার সঙ্গে সরকারি কর্মকর্তারা জড়িত কিনা, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বিদেশি কোম্পানিও এর সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে বলে তারা সন্দেহ করছেন।

চার মাস আগে ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছিল, ৯৯ শতাংশ বাতিলকৃত নোট সংগ্রহ করে সমপরিমাণ অর্থের নতুন নোট বাজারে ছাড়া হয়েছে।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: