Thursday, 15 November, 2018 | ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

কূটনীতিকদের যা বললো বিএনপি

দৈনিকসিলেটডেস্ক:জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রায় পরবর্তী সর্বশেষ পরিস্থিতি, বর্তমান সরকারের আমলে দলটির নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা, গুম-খুন, গ্রেপ্তারসহ বিভিন্ন তথ্য ঢাকায় নিযুক্ত বিদেশি কূটনীতিকদের কাছে তুলে ধরেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বিএনপির চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে কূটনীতিকদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বিএনপি নেতারা এসব তথ্য তুলে ধরেছেন। বিকেল ৪টা থেকে শুরু হয়ে প্রায় সাড়ে ৫টা পর্যন্ত এ রুদ্ধদ্বার বৈঠক চলে।

বিএনপি নেতাদের পক্ষ থেকে দেড় ঘণ্টাব্যাপী বৈঠকে জানানো হয়, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে যে মামলার রায় দেওয়া হয়েছে তা ১/১১ এর সময়ে করা হয়েছিল। ওই সময় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামেও মামলা করা হয়েছিল। সরকারি আদেশে প্রধানমন্ত্রীর মামলা উঠিয়ে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলাগুলো রেখে দেওয়া হয়েছে তাকে হেনস্তা করতে। এমনটাই জানান দলটির নেতারা।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, এসময় বিএনপি নেতাদের পক্ষথেকে বলা হয় ‘ বিএনপির চেয়ারপারসন বেগমখালেদা জিয়ার মামলার সর্বশেষ তথ্য, জেল কোড অনুযায়ী ডিভিশন না দেওয়া, অন্য মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর ভয়, মামলার সার্টিফাইড কপি দিতে বিলম্বসহ বিভিন্নভাবে তাকে কিভাবে হেনস্তা করা হচ্ছে, সেই বিষয়গুলোই বিদেশি কূটনীতিকদের সামনে তুলে ধরা হয়েছে।’ নেতারা আরো বলেন, ‘বিএনপি শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মাধ্যমে প্রতিবাদ জানাচ্ছে, আগামীতেও শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি চালিয়ে যাবে বলেও তাদের আশ্বস্ত করা হয়েছে।’

এ ব্যাপারে কূটনীতিকরাও নাকি বিএনপির গণতান্ত্রিক এ আন্দোলনকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন। বিএনপি নেতারা এমনটাই জানান।

এ বৈঠকে উপস্থিত বিএনপির এক নেতা বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে বাংলাদেশে গণতন্ত্র, আইনের শাসন নেই তা তুলে ধরা হয়েছে। পাশাপাশি গণতন্ত্র ও আইনের শাসন ফিরিয়ে আনতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানানো হয়েছে দলটি পক্ষ থেকে।

জানা গেছে, কূটনীতিকদের মধ্যে সুইডেন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া, সৌদি আরব, পাকিস্তান, তুরস্ক, জাপান, স্পেন, সুইজারল্যান্ড, জার্মানি, কানাডা ও চীনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)’র পক্ষ থেকে এ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন: দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান, সাবিহউদ্দিন আহমেদ, এ জে মোহাম্মাদ আলী, ড. ইনাম আহমেদ চৌধুরী, বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন, আইনবিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক রুমিন ফারহানা, বেবী নাজনীন, ফাহিমা মুন্নি ও নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল।

উল্লেখ্য, দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া তারেক রহমানসহ বাকিদের ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। দণ্ডবিধি ১০৯ ও ৪০৯ ধারায় খালেদা জিয়াসহ বাকিদের সাজা দেয়া হয়। বয়স বিবেচনায় খালেদা জিয়ার সাজা কমানো হয় বলে রায়ে উল্লেখ করেন আদালত। কারাদণ্ডের পাশাপাশি সব আসামিকে দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়। গত ৮ ফেব্রুয়ারি পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ আদালতের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান এ রায় দেন।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: