Sunday, 16 December, 2018 | ২ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে একুশে পদক গ্রহণ করলেন ২১ জন গুনী

দৈনিকসিলেটডেস্ক: প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার কাছ থেকে একুশে পদক ২০১৮ নিলেন দেশের গুনী ২১ জন। মঙ্গলবার সকালে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী এ পদক তুলে দেন।

এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজ ভাষা ও সংস্কৃতির স্বকীয়তা বজায় রাখার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, নিজেদের গৌরব গাথা নিজেদেরই সংরক্ষণ ও প্রচার করতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের বিভিন্ন ঐতিহ্য রয়েছে সেগুলো তুলে ধরতে হবে। আমাদের জামদানি রয়েছে। সেটার অধিকার কেড়ে নেয়ার চেষ্টা হয়েছে। আমরা সে অধিকার ফিরে পেয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের মঙ্গল শোভাযাত্রাকে ইউনেস্কো স্বীকৃতি দিয়েছে। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি পেয়েছি। নকশিকাথা ও সিলেটের শীতল পাটির স্বীকৃতি মিলেছে।

এগুলো আমাদের অর্জন। এসব ঐতিহ্য সংরক্ষণ ও প্রচার করতে হবে।

স্বাধীনতার অর্জন যেন কোনোভাবেই নস্যাৎ না হয় সেদিকে সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

পাকিস্তানের প্রেতাত্মারা এখনও সক্রিয় বলেই দেশের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ওপর বার বার আঘাত আসছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।।

এর আগে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২১ গুণীকে একুশে পদক প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

চলতি বছরের একুশে পদকপ্রাপ্তরা হলেন- ভাষা আন্দোলনে আ জ ম তকীয়ূল্লাহ (মরণোত্তর) ও অধ্যাপক মির্জা মাজহারুল ইসলাম। সংগীতে শেখ সাদী খান, সুজেয় শ্যাম, ইন্দ্রমোহন রাজবংশী, খুরশীদ আলম ও মতিউল হক খান। নৃত্যে মীনু হক (মীনু বিল্লাহ)। অভিনয়ে হুমায়ুন ফরীদি (মরণোত্তর), নাটকে নিভিল সেন, চারুকলায় কালীদাস কর্মকার, আলোকচিত্রে গোলাম মুস্তাফা, সাংবাদিকতায় রণেশ মৈত্র, গবেষণায় ভাষাসৈনিক অধ্যাপক জুলেখা হক (মরণোত্তর), অর্থনীতিতে ড. মইনুল ইসলাম, সমাজসেবায় ইলিয়াস কাঞ্চন। ভাষা ও সাহিত্যে সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম খান (কবি হায়াৎ সাইফ), সুব্রত বড়ুয়া, রবিউল হুসাইন ও খালেকদাদ চৌধুরী (মরণোত্তর)।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: