Wednesday, 19 December, 2018 | ৫ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

পাওনা টাকার জেরে হবিগঞ্জে যুবক খুন

দৈনিকসিলেটডেস্ক: পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে হবিগঞ্জ ছুরিকাঘাতে রাসেল মিয়া (২৫) নামে এক যুবক খুন হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন একজন।

বুধবার রাতে শহরের কামড়াপুরে খোয়াই নদীর এমএ রব ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রাসেল মিয়া বানিয়াচং উপজেলার নয়াপাথারিয়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত লাল মিয়ার ছেলে।

আহত সোহাগ মিয়া (২৪) শহরের উমেদনগর গ্রামের কিতাব আলীর ছেলে। তাকে সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, পাওনা টাকা নিয়ে রাসেল এবং সোহাগের মধ্যে বেশ কিছু দিন ধরে বিরোধ চলছিল।

বুধবার সন্ধ্যায় তারা শহরের কামড়াপুরে খোয়াই নদীর এমএ রব ব্রিজ এলাকায় বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। একপর্যায়ে তারা উত্তেজিত হয়ে একে অন্যকে ছুরিকাঘাত করতে থাকে। এতে তারা উভয়েই গুরুতর আহত হন।

তাৎক্ষণিক স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন রাতে রাসেল মিয়া মারা যান।

হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. ইয়াছিনুল হক জানান, নিহত রাসেল ও আহত সোহাগ দুজনই মাদকাসক্ত। তাদের মধ্যে লেনদেন বা কোনো কিছু নিয়ে হয়তো বিরোধ চলছিল। এর জের ধরেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে।

তবে প্রকৃত কারণ অনুসন্ধানে চেষ্টা চলছে। এ ছাড়া আহত সোহাগের বিরুদ্ধে সদর থানায় ২-৩টা মামলা রয়েছে। তাকে বর্তমানে পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে হবিগঞ্জ ছুরিকাঘাতে রাসেল মিয়া (২৫) নামে এক যুবক খুন হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন একজন।

বুধবার রাতে শহরের কামড়াপুরে খোয়াই নদীর এমএ রব ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রাসেল মিয়া বানিয়াচং উপজেলার নয়াপাথারিয়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত লাল মিয়ার ছেলে।

আহত সোহাগ মিয়া (২৪) শহরের উমেদনগর গ্রামের কিতাব আলীর ছেলে। তাকে সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, পাওনা টাকা নিয়ে রাসেল এবং সোহাগের মধ্যে বেশ কিছু দিন ধরে বিরোধ চলছিল।

বুধবার সন্ধ্যায় তারা শহরের কামড়াপুরে খোয়াই নদীর এমএ রব ব্রিজ এলাকায় বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। একপর্যায়ে তারা উত্তেজিত হয়ে একে অন্যকে ছুরিকাঘাত করতে থাকে। এতে তারা উভয়েই গুরুতর আহত হন।

তাৎক্ষণিক স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন রাতে রাসেল মিয়া মারা যান।

হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. ইয়াছিনুল হক জানান, নিহত রাসেল ও আহত সোহাগ দুজনই মাদকাসক্ত। তাদের মধ্যে লেনদেন বা কোনো কিছু নিয়ে হয়তো বিরোধ চলছিল। এর জের ধরেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে।

তবে প্রকৃত কারণ অনুসন্ধানে চেষ্টা চলছে। এ ছাড়া আহত সোহাগের বিরুদ্ধে সদর থানায় ২-৩টা মামলা রয়েছে। তাকে বর্তমানে পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: