Wednesday, 17 October, 2018 | ২ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

রোজা রেখেই ফাইনাল খেলবেন মোহাম্মদ সালাহ

দৈনিকসিলেটডেস্ক: অধিকাংশ খেলোয়াড় হয়তো বলবেন, চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার জন্য সব করতে রাজি। কিন্তু লিভারপুলের মিশরীয় তারকা মোহাম্মদ সালাহ মোটেও তেমন নন। ইউরোপ সেরার মুকুটের জন্য রোজা রাখায় বিরতি দিতে তিনি নারাজ। কিয়েভের ফাইনালে রিয়ালের বিপক্ষে রোজা রেখেই মাঠে নামবেন। সম্প্রতি মিশরের স্থানীয় পত্রিকা আল মাসরি আল ইয়ুমের বরাতে এমন তথ্য জানিয়েছে স্প্যানিশ পত্রিকা মার্কা।

চলতি মে মাসের ১৬ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে মুসলমানদের পবিত্র মাস রমজান। রমজানের মধ্যেই আগামী ২৬ তারিখে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে অনুষ্ঠিত হবে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল। ফাইনালে স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে লিভারপুল। সেই ম্যাচে লিভারপুলের প্রত্যাশার বিশাল চাপ সামলানোর ভার পড়েছে ক্লাবের মিশরীয় তারকা মোহাম্মদ সালাহর কাঁধে।
লিভারপুলের বহুল প্রত্যাশিত ইউরোপ সেরার মুকুট যার খেলার উপর অনেকাংশে নির্ভর করছে সেই সালাহ জানিয়েছেন, ফাইনালে রোজা রেখেই খেলা চালিয়ে যাবেন তিনি। তবে রোজা রাখায় তার শারীরিক সামর্থ্য সংশয়ে পড়তে পারে ভক্ত-সমর্থকদের এমন দুশ্চিন্তার জবাবে তিনি জানিয়ে দিলেন রোববারের ফাইনালে রোজা রেখে খেলায় তার পারফরম্যান্সে কোন অসুবিধা হবেনা।

ইংলিশ ক্লাব ফুটবলে বহু মুসলিম খেলোয়াড় রয়েছেন। এক লিভারপুলেই আছেন সেনেগালের সাদিও মানে। আর্সেনালে আছেন জার্মান তারকা মেসুত ওজিল। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে আছেন পল পগবা। এই মুসলিম ফুটবলারদের ধর্মভীরুতা সম্পর্কে সবাই ওয়াকিবহাল।

লেগানেসের মরক্কান ফুটবলার নাবিল এল জাহর মনে করেন, রোজা রাখায় তার অনুশীলনে বাড়তি সুবিধা হয়। এতে তিনি ‘ভিতর থেকে পরিচ্ছন্ন’ বোধ করেন।

তবে সালাহর সিদ্ধান্তের সমালোচনা হচ্ছে না তা নয়। পুষ্টিবিদ জেসুস মুনোজ যেমন দাবি করলেন, যদিও তারা (রোজাদার ফুটবলার) পরিচ্ছন্ন বোধ করে, তবে শারীরিক শ্রমের ক্ষেত্রে তারা পিছিয়ে পড়ে।’

সালাহর সিদ্ধান্ত নিয়ে তিনি বলেন, ‘যদি সে (সালাহ) পুরোপুরি রোজা রাখে, তাহলে খেলায় তার প্রভাব পড়বেই।’




© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: