Monday, 23 July, 2018 | ৮ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

Advertisement

কানাইঘাটে রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি’র তালিকা থেকে বাদ পড়ায় বর্ন্যাতদের মাঝে ক্ষোভ

কানাইঘাট প্রতিনিধিঃ কানাইঘাটে রেডক্রিসেন্ট সোসাটি’র আর্থিক সাহায্যের তালিকা থেকে বাদ পড়ায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ লোকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। জানা যায় সিলেট ও মৌলভীবাজার জেলায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পাশে আর্তমানবতার সেবা নিয়ে এগিয়ে আসে বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি।

তারা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ এলাকার লোকজনকে নগদ অর্থ প্রদানের জন্য ইতিমধ্যে নিজ নিজ ইউপি কার্যালয়ে তালিকা টানিয়ে দিচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল বৃহস্পতিবার কানাইঘাট উপজেলার সাতবাঁক ইউপি’তে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের আর্থিক সাহায্য প্রদানের নামীয় তালিকা টানিয়ে রাখেন বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম, সিলেটের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলাউর রহমান। এ তালিকাটি পড়ে মানুষের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করে। এতে লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউপি’র সদস্য মজির উদ্দিন ও ইউপি আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান আহমদ জানান, তাদের ইউপিতে ১০০টি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে অনুদান প্রদানের কথা থাকলেও বন্যা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা নির্ধারণ সহ ভুক্তভোগীদের তালিকায় ব্যাপক অনিয়ম রয়েছে। মাত্র ৪০ জনের নাম উল্লেখ করে কর্তৃপক্ষ একটি তালিকা প্রণয়ন করেছে। অপরদিকে সাতবাঁক ইউপি’র সদস্য কামরুল ইসলাম, হেলাল উদ্দিন মামুন, শাব্বির আহমদ সহ জনপ্রতিনিধিরা এই তালিকা দেখে দুঃখ প্রকাশ করে বলেন বাংলাদেশ সহ আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি যেখানে আর্তমানবতায় সুনাম অর্জন করে চলছে সেখানে ছোট ছোট ইউপি গুলোর তালিকায় প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থদের স্থান না হওয়াটা দুঃখ জনক।

জানা যায় বিদেশীদের অর্থায়নে ও রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির বাস্তবায়নে মৌলভীবাজার ও সিলেট জেলার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য আর্থিক সাহায্য প্রদান করা হবে। তাদের নিয়ম মোতাবেক নিজস্ব কর্মীরা সরেজমিনে সাহায্য প্রাপ্ত লোকদের তালিকা তৈরী করেন। কিন্তু সেই তালিকায় নানা অনিয়ম হয়েছে বলে জনপ্রতিনিধিরা জানান। তারা মিজান নামের এক কর্মীর নাম উল্লেখ করে বলেন, তার একগুয়েমির কারনে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থরা তালিকা থেকে বাদ পড়েছে এমনকি তালিকায় একাধিক বার এক ব্যাক্তির নামও রয়েছে। নিয়ম মোতাবেক জনপ্রতিনিধিদের সহযোগীতায় সরেজমিনে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তির নাম তালিকায় প্রণয়ন করা হয়নি। তারা উল্লেখ করে বলেন যেখানে সাতবাঁক ইউপিতে ১৫০টি পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা দেবার কথা সেখান মিজান নামের কর্মী ৬৫জনের তালিকা প্রদান করেছেন। যা রহস্য জনক বলে তারা জানান রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির নেতৃবৃন্দের কাছে। রেডক্রিসেন্টের নেতৃবৃন্দ জনপ্রতিনিধি ও ক্ষতিগ্রস্থ লোকদের সকল কথা মনযোগ সহকারে শুনেন। তারা শীঘ্রই বন্যায় প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের নামের তালিকা প্রণয়ন করে তাদেরকে পুনবার্সনের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবী জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম, সিলেটের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলাউর রহমান এর সাথে কথা হলে তারা জানান আমরা বিষয়টি নিয়ে কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: