Monday, 15 October, 2018 | ৩০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

সড়ক থেকে জাবালে নূরের ৬ বাস জব্দ

দৈনিকসিলেটডেস্ক: বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের পর ঘাতক জাবালে নূর পরিবহনের রুট পারমিট বাতিল করেছিল বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)।

কিন্তু তারপরও পরিবহনটির বেশ কিছু বাস সড়কে চলাচল করছিল। এর ফলে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে জাবালে নূর পরিবহনের ছয়টি বাস জব্দ করেছে র‌্যাব।

শনিবার দুপুরে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি মিজানুর রহমান পরিবর্তন ডটকমকে এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, রুট পারমিট বাতিল স্বত্ত্বেও সড়কে চলাচল করায় জাবালে নূর পরিবহনের ৬টি বাস জব্দ করেছে র‌্যাব-১ ও র্যা ব-৪ এর সদস্যরা।

যাচাই-বাছাই শেষে বাসগুলোর বিরুদ্ধে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান এএসপি মিজান।

দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় গত ১ আগস্ট জাবালে নূর পরিবহনের নিবন্ধন ও ফিটনেস সনদ বাতিল করে বিআরটিএ।

বিআরটিএ’র উপ-পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ার-১) শেখ মো. মাহবুব-ই রাব্বানী পরিবর্তন ডটকমকে জানান, দুর্ঘটনায় দায়ী জাবালে নূর পরিবহনের লাইসেন্স ও ফিটনেস সনদ বাতিল করা হয়েছে। পাশাপাশি দুর্ঘটনায় দায়ী দুই বাস চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স বাতিল করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৯ জুলাই দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জাবালে নূর পরিবহনের একটি বেপরোয়া বাস বিমানবন্দর সড়কের জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভারের গোড়ায় দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই দু’জন নিহত হন।

নিহতরা হলেন- শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম ও একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম।

এ ঘটনায় মিমের বাবা জাহাঙ্গীর ফকির রাতেই ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করেন। বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে হত্যার অভিযোগ আনা হয় ওই মামলায়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্যে, আনসার ক্যাম্প-আব্দুল্লাহপুর রুটের জাবালে নূরের একাধিক বাস পাল্লাপাল্লি করতে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটায়। ওই ঘটনায় ঘাতক বাসের চালক মো. মাসুম বিল্লাহসহ ৬ জন গ্রেফতার হয়েছেন।




© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: