Sunday, 16 December, 2018 | ২ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

ড. জামিলুর রেজা চৌধুরীকে সিসিকের নাগরিক সংবর্ধনা

দৈনিকসিলেটডটকম:তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা, জাতীয় অধ্যাপক ও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান উপদেষ্টা প্রফেসর ড. প্রকৌশলী জামিলুর রেজা চৌধুরী বলেছেন, সকলের চিন্তা, চেতনা, দৃষ্টিভঙ্গি এবং মেধার প্রয়োগের মাধ্যমে সিলেট নগরীকে একটি আধুনিক ডিজিটাল নগরী গড়ে তোলতে হবে। ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী বলেন, দ্রুত সিলেটের অগ্রগতি হচ্ছে। সহায়তা পেলে সিলেটকে স্মার্ট সিটি হিসেবে গড়ে তুলা সম্ভব। তিনি বলেন, ৭৫ বছর আগে এই সিলেটে তার জন্ম হওয়ার পর আজ এই সম্মান তাকে অনুপ্রানিত করেছে। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের এই সম্মান চীর দিন মনে থাকবে উল্লেখ করে তিনি বলেন,
জীবনের বাকি সময় সিলেটের উন্নয়নসহ দেশ-জাতী ও মানবতার কল্যানে কাজ করে যাব।

বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) সন্ধ্যায় নগরীরর একটি অভিযাত হোটেলের হলরুমে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে সরকার কর্তৃক জাতীয় অধ্যাপকে ভূষিত হওয়ায় এক নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী এতে সভাপতিত্ব করেন।

সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব আমিনুল ইসলাম চৌধুরী লিটনের পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেনস সিসিকের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ বদরুল হক।

অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান উপদেষ্ঠা জাতীয় অধ্যাপক প্রফেসর ড. প্রকৌশলী জামিলুর রেজা চৌধুরী। অনুষ্ঠানে জাতীয় অধ্যাপক প্রফেসর ড.জামিলুর রেজা চৌধুরীর হাতে সম্মাননা স্মারক উত্তরী পরিয়ে দেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সহ অনুষ্ঠানে আগত অতিথিরা। এছাড়া আধুনিক ও ডিজিটাল নগরী গড়ে তোলতে অনুষ্ঠানে প্রফেসর ড.জামিলুর রেজা চৌধুরীর হাতে সিলেট নগরীর চাবি তোলে দেন সিসিক মেয়র ও কাউন্সিলররা। অনুষ্ঠানে নিটল- নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান আব্দুল মাতলুব আহমাদকেও সন্মাননা স্বারক তোলে দেয়া হয়। প্রফেসর ড. প্রকৌশলী জামিলুর রেজা চৌধুরীর প্রতিকৃত উন্মোচন করেন মেয়র পতিœ সামা হক চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, সিসিকের প্রধান প্রধান উপদেষ্টা জাতীয় অধ্যাপক প্রকৌশলী জামিলুর রেজা চৌধুরীকে সম্মানিত করতে পেরে আমরা নিজেরাও সম্মানিত হয়েছি। তিনি বলেন, আজ আমরা সিলেটীরা ক্রমান্ময়ে নেতৃত্বহীন হয়ে পড়েছি। তিনি সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, হুমায়ুনরশীদ চৌধুরী, আব্দুস ছামাদ আজাদ, শাহ এএসএম কিবরিয়ার কথা স্বরণ করে বলেন, অতিথে তারা ছিলেন বলে সিলেটে এতো উন্নয়ন হয়েছে। এখন বর্তমান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত সিলেটের সন্তান হিসেবে আছেন বিধায় উন্নয়ন এখনো বাধাগ্রস্থ হয়নি। তবে কিছুদিন পর আর সেই ধারাবাহিকতা থাকবে কিনা সঙ্কার কথা জানিয়ে আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, এখন থেকে আমাদের জাতীয় নেতা তৈরী করতে হবে।

সভায় বক্তব্য রাখেন, লিটন-নিলয় গ্রুপের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এস এ ফারুক, প্রফেসর ড. কবীর চৌধুরী, সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর মনির উদ্দিন, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট মোহাম্মদ লালা, সুজন সিলেটের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকরামুল কবির, পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম, ডা: শামীমুর রহমান, প্রফেসর ড. জহির বিন আলম, সিসিক কাউন্সিলর আজম খান, আফতাব হোসেন খান, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজনিন আক্তার কনা, সিসিকের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান।
এছাড়া অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী সংগঠনের সদস্য, সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলীরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন সিসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার আলী আকবর ও গীতাপাঠ করেন সিসিকের কর্মকর্তা চন্দন দাশ।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: