Thursday, 15 November, 2018 | ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

কবি মুকুল চৌধুরীর ৬০তম জন্মদিনে আলোচনা সভা

দৈনিকসিলেট : কবি মুকুল চৌধুরী সত্তর দশকের একজন শক্তিমান কবি। তাঁর কবিতায় উচ্চারিত হয়েছে বিশ্বাস এবং ঐতিহ্যের শৈল্পিক সত্ত্বা। সার্বজনীন মূল্যবোধের চেতনা তাঁর কবিতাকে স্বকীয় মহিমায় উদ্ভাসিত করেছে। কালের কথামালাকে শৈল্পিক আবরণ দিয়ে

ঐতিহ্যকে সকলের সামনে তুলে ধরেছেন। তাঁর সৃষ্টি বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করবে।
কবি আফজাল চৌধুরী ফাউন্ডেশন এবং কবি কালাম আজাদ ফাউন্ডেশন, সিলেট-এর যৌথ উদ্যোগে বাংলা সাহিত্যের শক্তিমান কবি মুকুল চৌধুরীর ৬০ বছর পূর্তিতে ‘একজন কবির জীবন ও সাহিত্য সাধনা’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে বক্তারা একথা বলেন।
কবি আফজাল চৌধুরী ফাউন্ডেশনের সভাপতি শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ কবি কালাম আজাদের সভাপতিত্বে গত বুধবার বাদ সন্ধ্যা সিলেট কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রবীণ সাংবাদিক ও কলামিস্ট আফতাব চৌধুরী, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইংরেজি দৈনিক দ্য ফাইন্যানশিয়াল এক্সপ্রেসের ডাইরেক্টর কবি আব্দুল হান্নান সেলিম, কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সহ সভাপতি গল্পকার সাংবাদিক সেলিম আউয়াল, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী, কবি ডা. মাশুকুর রহমান এবং মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন কবি গবেষক মুসা আল হাফিজ।
কবি কালাম আজাদ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক কবি নাজমুল আনসারীর সঞ্চালনায় এবং সহ সভাপতি প্রাবন্ধিক জাহেদুর রহমান চৌধুরীর স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি কবি মুহিত চৌধুরী, সাহিত্য সমালোচক অধ্যাপক কবি বাছিত ইবনে হাবীব, শাবিপ্রবির ডেপুটি রেজিস্ট্রার সংগঠক আহমদ মাহবুব ফেরদৌস, কবি ফয়জুলহক, ছড়াকার এখলাসুর রহমান, ছড়াকার কামরুল আলম, শিশু সংগঠক নূর তমিজ ভূইয়া রিয়াদ, গল্পকার তাসলিমা খানম বীথি।
সভায় সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী শামসুল ইসলাম খান, কবিতা আবৃত্তি করেন কবি কামাল আহমদ, সংগঠক আবরার নাফি, কবি মো. আব্দুল বাছিত, কবি আব্দুল কাদির জীবন। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হাফিজ আবু বকর সাব্বির। অনুষ্ঠানের শেষে কবি মুকুল চৌধুরীর সুস্থতা কামনায় মোনাজাত পরিচালনা করেন প্রভাষক যুন্নুরাইন চৌধুরী।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রবীণ সাংবাদিক আফতাব চৌধুরী বলেন, কবি মুকুল চৌধুরী অত্যন্ত নিবেদিত প্রাণ একজন শিল্পী। তাঁর কবিতায় শিল্প আছে। জীবন আছে। বিশ্বাসের দর্শন তিনি কবিতায় ফুটিয়ে তুলেছেন। ঐতিহ্যকে তুলে ধরার কারণে বাংলা সাহিত্য তাঁর কাছে ঋণী।
ইংরেজি দৈনিক দ্য ফাইন্যানশিয়াল এক্সপ্রেসের ডাইরেক্টর কবি আব্দুল হান্নান সেলিম বলেন, কবি মুকুল চৌধুরীর সৃষ্টি বাংলা সাহিত্যের অমূল্য সম্পদ। সেই সম্পদের যথাযথ মূল্যায়ন করতে হবে।
কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সহ সভাপতি গল্পকার সাংবাদিক সেলিম আউয়াল বলেন, সাহিত্য একটি বিশ্বাসের আন্দোলন। যেই বিশ্বাস এবং ঐতিহ্যকে লালন করেছেন কবি মুকুল চৌধুরী। তাঁর কবিতায় দর্শনের যে অবতারণা তিনি করেছেন, তা তাঁকে বাংলা সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ট কবি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে।
অধ্যাপক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী বলেন, আমাদেরকে বিশ্বাস এবং ঐতিহ্যের প্রকাশে আন্তরিক এবং নিবেদিত হতে হবে। কবি মুকুল চৌধুরী তাঁর সাহিত্য সাধনার মাধ্যমে সেটা করে দেখিয়েছেন। তাঁর সাহিত্যপ্রতিভাকে মূল্যায়ন করার ম্যাধমে নিজেরাই মূল্যায়িত হবো।
কবি ডা. মাশুকুর রহমান বলেন, কবি মুকুল চৌধুরী তাঁর কবিতায় মননশীলতা এবং পরিশুদ্ধতার প্রকাশ ঘটিয়েছেন। কাব্যসাধনায় তিনি অনন্য। তাঁর কবিতার ভাষা আমাদেরকে মূলের দিকে টানে।
সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি কবি মুহিত চৌধুরী বলেন, কবি মুকুল চৌধুরী জীবনের জয়গান গেয়েছেন তাঁর কবিতায়। মানুষ, প্রকৃতি এবং সত্যের কথা বলেছেন। সর্বমানবিক চেতনা তাঁর কবিতার অবয়ব।
সাহিত্য সমালোচক অধ্যাপক কবি বাছিত ইবনে হাবীব বলেন, কবি মুকুল চৌধুরী কবিদের কবি। কালের কথাকে তিনি শৈল্পিক রূপ দিয়ে কবিতায় জীবন্ত করে তুলেছেন। মুকুল চৌধুরীকে চর্চা করার সময়ের দাবী।
সভাপতির বক্তব্যে কবি কালাম আজাদ বলেন, কবি মুকুল চৌধুরী তাঁর কবিতায় চিরন্তন সত্যের কথা বলেছেন। প্রতিটি কবিতায় আদর্শকে তুলে ধরে একটা ম্যাসেজ দিয়েছেন। আত্মার খোরাক জোগায় তাঁর কবিতা। আমাদেরকে তাই বিশ্বাস এবং ঐতিহ্যকে সাহিত্য সাধনায় লালন করতে হবে।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: