Saturday, 20 April, 2019 | ৭ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

বোরকা পরে স্ত্রীর পরীক্ষাকেন্দ্রে স্বামী, অতঃপর…

দৈনিকসিলেটডেস্ক: টানা সাত বছর প্রেমের পর বিয়ে করেন মাহমুদুল হাসান (২৮) ও জুলেখা খাতুন (২৫)। এরপর সুখের সংসার। বেশ ভালোই চলছিল। কিন্তু হঠাৎ একটি মুঠোফোনের কলে সেই সুখে সন্দেহের দানা বাঁধতে থাকে স্বামী মাহমুদুল হাসানের মনে। এরপর থেকে চোখে চোখে রাখেন স্ত্রী জুলেখাকে।

স্ত্রীর অনার্সের মৌখিক পরীক্ষা থাকায় একসঙ্গে ট্রেনেচেপে জামালপুর থেকে ময়মনসিংহ শহরে আসেন তারা। রিকশায় করে স্ত্রীকে ময়মনসিংহ শহরের আনন্দমোহন কলেজ গেটে নামিয়ে দেন।

এরপর স্ত্রী পরীক্ষাকেন্দ্রে থাকলেও সেখানে কী করছেন,কারও সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলছেন কি না,তা দেখতে সন্দেহের বশে শহরের একটি দোকান থেকে বোরকা কিনে ছদ্মবেশে প্রবেশ করেন স্ত্রীর পরীক্ষাকেন্দ্রে। কিন্তু সবঠিক থাকলেও ভুল করে ফেলেন কলেজের পুরুষ বাথরুমে ঢুকে। তাতেই বেঁধে যায় কাণ্ড। পুরুষ টয়লেট থেকে নারী বের হওয়ায় সন্দেহ হয় কলেজ কর্তৃপক্ষের। ব্যাস! সোজা পুলিশে খবর।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এসে আবিষ্কার করে বোরকা পরিহিত নারী নয়, পুরুষ। পরে ডিবি কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর এসব তথ্য নিজের মুখেই পুলিশের কাছে উপস্থাপন করেন মাহমুদুল হাসান।
ঘটনা আজ সোমবার দুপুরের। আটক ব্যক্তি মাহমুদুল হাসানের (২৭) বাড়ি শেরপুর জেলায়। তিনি জামালপুরের আইবিএ কলেজে করণিক পদে চাকরি করেন।

ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল বলেন, ‘পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে স্ত্রীকে সন্দেহের বশবর্তী হয়ে বোরকা পরে ছদ্মবেশে কলেজে প্রবেশের ঘটনাটি আমাদের কাছে স্বীকার করেছেন মাহমুদুল হাসান। এরপরও তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। কথা বলা হচ্ছে তার স্ত্রী জুলেখা খাতুনের সঙ্গেও। তারা দুজনেই আমাদের হেফাজতে রয়েছেন। তাদের মোবাইল ফোনও ট্র্যাক করা হচ্ছে। এরপর তাদের অভিভাবকদের ডেকে এনে তাদের সঙ্গেও কথা বলা হবে।’সূত্র: আমাদেরসময়

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: