Tuesday, 25 June, 2019 | ১১ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

বিশ্বনাথে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় লন্ডনে ব্যাপক সাড়া

লন্ডন প্রতিনিধি: দরিদ্র, অসহায় তথা সমাজের সুবিধাবঞ্চিত মানুষকে বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদানের পাশাপাশি এলাকার সর্বস্তরের মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বেসরকারিভাবে একটি হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এই মহতি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ব্রিটিশ দাতব্য সংস্থা ওয়ান পাউন্ড হসপিটাল ইউকে। আর এজন্য বৃটেনে বসবাসকারী বিশ্বনাথবাসীসহ সব কমিউনিটি তথা সর্বস্তরের হৃদয়বান মানুষকে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিষয়টি এতোদিন স্বপ্ন-কল্পনা ও আলাপ-আলোচনার মধ্যে সীমিত থাকালেও এখন তা বাস্তবে রূপ দেবার উদ্যোগ ও পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। ‘ওয়ান পাউন্ড জেনারেল হসপিটাল’ নামের এই হাসপাতাল নির্মাণের প্রাথমিক ধাপে সবার জন্য যাতায়াত উপযোগী বিশ্বনাথ থানা সদরের কাছাকাছি কোথাও ভূমি খোঁজা হচ্ছে। হাসপাতালটি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে প্রথম অনুষ্ঠিত পরামর্শ সভায় উপস্থিত লন্ডনে বসবাসকারী বিশ্বনাথবাসীদের পক্ষ থেকে ব্যাপক সাড়া পাওয়া গেছে। যা উদ্যোক্তাদের খুবই আশান্বিত করেছে। আপাতত ভূমি ক্রয়ের জন্য ১শ’ হাজার পাউন্ডের লক্ষ্যমাত্র নিয়ে অনুষ্ঠিত প্রথম সাধারণ সভায় উপস্থিত সূধীজনের কাছ থেকে ৭২ হাজার পাউন্ডের প্রতিশ্রুতি পাওয়া গেছে। উপস্থিত সবাই স্বাস্থ্যসেবার মতো একটি জরুরী ও মৌলিক চাহিদা পুরণে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার মহতি উদ্যোগের প্রশংসা করে তা বাস্তবায়নে বৃটেনে বসবাসকারী বিশ্বনাথবাসীসহ সর্বস্তরের মানুষকে সার্বিক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান।

গত ৯ জুন রোববার বিকেল ৫ ঘটিকায় এক সাধারণ সভা ওয়ান পাউন্ড হসপিটাল ইউকে চ্যারিটির ফাইনান্স ডাইরেক্টর, স্বনামধন্য একাউন্ট্যান্ট ও টাওয়ার হ্যামলেটসের সাবেক স্পিকার কাউন্সিলর মোহাম্মদ আয়াস মিয়ার পূর্বলন্ডনস্থ অফিসে অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত চ্যারিটি সংস্থার উপদেষ্টা ও বিশ্বনাথের প্রাচীনতম বিদ্যাপীঠ রামসুন্দর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক এম আবুল হাশিমের সভাপতিত্বে এবং সংস্থার লন্ডন কো-অর্ডিনেটর কাউন্সিলর শাহ সুহেল আমিন ও মাওলানা সিরাজুল ইসলাম সা’দের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভার শুরুতে ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের স্বপ্নদ্রষ্টা ও উক্ত চ্যারিটির সিইও ডা. মো. শানুর আলী মামুন তাঁর কীনোট বক্তব্যে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার প্রয়োজনীয়তা, উদ্দেশ্য ও কার্যাবলীর বর্ণনা প্রদান করেন। গত কয়েক বছর ধরে এলাকার মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ওয়ান পাউন্ড হসপিটাল প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখার পাশাপাশি এর বাস্তব রূপায়নের জন্য বিভিন্ন সংস্থা এবং বিজ্ঞজনদের পরামর্শ ও সহযোগিতা জন্য তাঁর ছোটাছুটির সংক্ষিপ্ত কাহিনীও তুলে ধরেন তিনি। উপস্থিত সবার আগ্রহ ও সহযোগিতার আশ্বাস পেয়ে সবার কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি ব্যয়বহুল এই প্রকল্প ওয়ান পাউন্ড জেনারেল হসপিটাল প্রতিষ্ঠায় দলমত নির্বিশেষে এগিয়ে আসার আবেদন সবিনয় আবেদন জানান।

চ্যারিটি সংস্থার সেক্রেটারি জেনারেল ও ডাইরেক্টর অব ফাইনান্স কাউন্সিলার আয়াস মিয়া বলেন, গরীব ও অসহায় রোগীদের চিকিত্সা সেবায় বিশ্বনাথে একটা হাসপাতাল অতীব জরুরি এবং এখন সময়ের দাবী। যা থেকে শুধু বিশ্বনাথ নয় সিলেটসহ পুরো বাংলাদেশের গরীব রোগীরা এর সুবিধা ভোগ করতে পারবে। বিশ্বনাথসহ সিলেটের অনেক দানশীল মানুষজন আছেন যারা এগিয়ে আসলে এটা বাস্তবায়ন মোটেই অসম্ভব নয়।

তিনি আরো জানান, হাসপাতাল স্থাপনের জন্য বিশ্বনাথ রশিদপুর সড়কের পার্শে অত্যন্ত সুন্দর লকেশনে প্রায় একশত শতক জমিও পাওয়া গিয়েছে। গত সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক জমি ক্রয়ের কথাবার্তাও চলছে। এজন্য আমাদের প্রয়োজন এক শত হাজার পাউন্ড। যে কেউ এককভাবে অথবা সমষ্টিগতভাবে এই জমির দাতা হতে পারেন। এজন্য সমাজের দানশীল ব্যাক্তিবর্গ এগিয়ে আসার অনুরোধ করেন তিনি।

সংস্থার ডাইরেক্টর অব মার্কিটিং, ইমিগ্রেশন এডভাইজার আনসার হাবিব বলেন, অফিসিয়েলি এবং বাস্তবে এই চ্যারিটি সংস্থা অনেক দূর এগিয়ে আছে। ব্রিটিশ চ্যারিটি কমিশন কর্তৃক রেজিষ্টারড সংস্থাটি গত কয়েক বছর থেকে সফলতার সাথে ফ্রি ফ্রাইডে ক্লিনিক ও ফ্রি মেডিক্যল ক্যাম্পের মাধ্যমে বিশ্বনাথে বিনামুল্যে অসহায় রোগীদের সেবা দিয়ে আসছে। এই সেবা প্রতি সপ্তাহে অব্যাহত রাখার পাশাপাশি স্থায়ী একটি হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার জন্য সবার কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়ে তিনি বলেন, বিশ্বনাথে অনেক চ্যারিট্যাবল সংস্হা কাজ করলেও, স্বাস্হ্য সেবায় এটাই প্রথম এবং ব্যতিক্রমধর্মী।

সভায় উপস্থিত প্রায় সবাই খুশিমনে ১ হাজার পাউন্ড প্রদান করে ফাউন্ডার মেম্বার হিসেবে নিজেদের হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় সম্পৃক্ত করেন। তম্মধ্যে অনেকে নিজে একজন ফাউন্ডার মেম্বার হওয়ার সাথে সাথে আত্মীয়স্বজন ও বন্ধুবান্ধবদের অনুপ্রাণিত করে আরও অন্তত দশজন করে ফাউন্ডার মেম্বার করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।

সভার সভাপতি মাস্টার এম এ হাশিম বলেন, নিঃসন্দেহে এটা এক মহতি উদ্যোগ এবং ছদকায়ে জারিয়ার নিয়তে মুক্ত হস্তে দান খয়রাত প্রদানের এক যথাযথ প্লাটফরম। আমি আনন্দিত আপনাদের ৭২ জন ইতিমধ্যে ফাউন্ডার মেম্বার হিসাবে প্রতিশ্রুতি প্রদান করেছেন। আপনাদের প্রথম একশত জনের নাম ভূমি দাতা হিসাবে হাসপাতালের ‘ওয়ান অব ওনার’ এ অনন্তকাল লেখা থাকবে উল্লেখ করে তিনি দলমত নির্বিশেষে হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কমিউনিটি নেতা শাহ ফারুক আহমদ, মাস্টার সিরাজুল ইসলাম, বৃটেন সফররত হাজী মফিজ আলী গার্লস স্কুলের সাবেক শিক্ষক মাস্টার এমাদ উদ্দিন, কমিউনিটি নেতা মো. ফারুক মিয়া, বিশ্বনাথ প্রবাসী এডুকেশন ট্রাস্টের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন, ওয়ান পাউন্ড হসপিটালের ফান্ড রাইজিং ডাইরেক্টর শেখ হারুন রশীদ, লন্ডন কো-অর্ডিনেটর মো. শাহীন মোস্তফা, সাপ্তাহিক সুরমার বার্তা সম্পাদক কবি কাইয়ুম আবদুল্লাহ, প্রবাসী অলংকারী ইউনিয়ন এন্ড ডেভেলপমেন্ট ট্রাস্ট ইউকের কোষাধক্ষ্য এম এ সালাম, মো. মইনুল হোসেন. মো. ওয়াহিদ আলী, মো. ফারুক মিয়া, মো. কামাল উদ্দিন সাবলু, এম এম আই খালেদ, মো. জাহাংগীর আলম শাহান, মো. সাবির উদ্দিন, মো. ইউসুফ খান, আবু সাদাত, মো. সুহেল, মো. ফজলুর রহমান, মো. হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: