Thursday, 19 January, 2017 | ৬ মাঘ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
কলেজছাত্রী ঝুমাকে ছুরিকাঘাতকারী জকিগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার  » «   মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় এসএসসি পরীক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু  » «   ‘বাংলাদেশে বিশ্বমানের বাণিজ্যিক সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে’  » «   বাংলাদেশে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে বৃটিশ পার্লামেন্ট সেমিনার  » «   দিরাইয়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে, নিহতদের দাফন সম্পন্ন  » «   পুলিশকে সহযোগিতা করলে অপরাধ নির্মূল করা সহজ হবে: পুলিশ কমিশনার  » «   সাইফুর রহমানের কবর জিয়ারত করলেন আরিফ  » «   ‘অনলাইন প্রেসক্লাবই হচ্ছে ডিজিটাল বাংলাদেশের বাস্তব উদাহরণ’  » «   বাহুবলে মাইকে ঘোষণা দিয়ে সংঘর্ষ,আহত অর্ধশতাধিক  » «   ‘সিলেটবাসীর প্রত্যাশা পূরণ করতে লুৎফুর নিরলস ভাবে কাজ করবেন’  » «   প্রমাণ করুন মানুষ মানুষের জন্য…  » «   দিরাইয়ে দুই পক্ষের বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৩  » «   মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে: বিভাগীয় কমিশনার  » «   জালালাবাদে দুইপক্ষের সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক  » «   ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা শুরু বুধবার  » «  





যানবাহনে নিরাপত্তামূলক যন্ত্র উদ্ভাবন করলেন লিডিং ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী

wsদৈনিকসিলেটডটকম: সিলেটের লিডিং ইউনিভার্সিটির ইলকেট্রক্যিাল এন্ড ইলকেট্রনিক ইঞ্জনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের তিন শিক্ষার্থী আশিক হোসেন, সাব্বির আহমদ এবং মো. জামাল মিয়া যানবাহনের নিরাপত্তামূলক ইন্টারলক ব্যবস্থা সম্বলিত একটি যন্ত্র উদ্ভাবন করেছেন। এ যন্ত্র দ্বারা যানবাহন সনাক্তকরণ, অনুসরণ ও অনুকরণ সম্ভব।

এই যন্ত্রের মাধ্যমে গাড়ির মালিকসহ আরো কয়েকজন চালকের ফিঙ্গারপ্রিন্ট একসাথে রেকর্ড করে রাখা সম্ভব, যাতে অন্য কোন চালক বা চোর গাড়িটিকে সচল করতে না পারে। কোন অজানা ব্যক্তি যদি গাড়ির গায়ে স্পর্শ করে তাহলে যন্ত্রের মাধ্যমে সাথে সাথে মালিকের মোবাইলে মেসেজ চলে আসবে এবং মেসেজের মাধ্যমে মালিক তার গাড়িটিকে তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করতে পারবেন।

তাছাড়া গাড়িটি কোন জায়গায় আছে তা সনাক্ত করা, এমনকি চোর যন্ত্রটির কানেকশন ছিঁড়ে ফেললেও গাড়িটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে।

লিডিং ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরী ইইই বিভাগের তিন শিক্ষার্থীদের এমন গুরত্বপূর্ণ ও সময়োপযোগী একটি যন্ত্র উদ্ভাবন করায় অভিনন্দন জানান। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন লিডিং ইউনিভার্সিটির আধুনিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ও ইইই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. খন্দকার মো. মুমিনুল হক, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন ও ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর মো. নজরুল ইসলাম, ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও আই.কিউ.এ.সি. এর পরিচালক মো. রেজাউল করিম প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Developed by: