12

Sunday, 26 February, 2017 | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
মহাজনপট্টি থেকে ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার  » «   ওসমানীনগরে নির্বাচনী সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৩০  » «   ফুলকলিতে মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্য, ২০ হাজার টাকা জরিমানা  » «   ‘আমার ফাঁসি হোক, ‘সুখী হও খাদিজা,  » «   সিলেটবাসীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করলেন বেঙ্গলের লিটু  » «   বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, যুক্তিতর্ক উপস্থাপন ১ মার্চ  » «   বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে গেছেন খাদিজা  » «   লিবিয়ায় নির্যাতন ইমোতে দেখিয়ে পণ দাবি  » «   লেবানন গিয়ে নবীগঞ্জের এক যুবতি নিখোঁজ: গ্রেফতার ২  » «   বেঙ্গল চেয়ারম্যান লিটুর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ সিলেটবাসী  » «   বেঙ্গল চেয়ারম্যান লিটুকে সিলেটবাসীর কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান  » «   ড.মোমেনকে সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের অভিনন্দন  » «   প্রয়াত সুরঞ্জিতের আসনে জাসদের প্রার্থী আমিনুল  » «   চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন ড. অাব্দুল মোমেন  » «   খালেদা জিয়া জঙ্গিবাদীদের ইন্ধনদাতা : সিলেটে তথ্যমন্ত্রী  » «  





ড. মোমেন বললেন ছোটবেলার ভিক্ষা করেছি

w1দৈনিকসিলেটডটকম: বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও জাতিসংঘে বাংলদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত ড.এ কে আব্দুল মোমেন বললেন ছোটবেলার তিনি এবং তার মা ভিক্ষা করেছেন। তবে এ ভিক্ষা নিজেদের জন্য নয় কিশোরীমোহন সরকারী (বালক) প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরেছেন।
১৯৩০ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে জাতীয়করণের পূর্ব পর্যন্ত স্কুলটি অনেকবার বন্ধ হয়ে গিয়েছিল আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে।

অর্থমন্ত্রী ও ড. মোমেনের মা সৈয়দা শাহারবানু চৌধুরী বহুবছর এ স্কুলের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ছিলেন। স্কুলের আর্থিক অসচ্ছলতা দুর করতে শাহারবানু শহরের বিত্তশালীদের কাছে যেতেন। বাসায় বাসায় গিয়ে টাকা-পয়সা বা ধান-চাল জোগাড় করতেন। নিজের আত্মীয় স্বজনসহ সবার কাছেই তিনি স্কুলটির জন্য সাহায্য চাইতেন। তখন ছোট্ট মোমেনও মা’র সহযাত্রী হতেন।
কিশোরীমোহন সরকারী (বালক) বিদ্যালয়ে সেই মহিয়সী মহিলার নামে একটি ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। ‘সৈয়দা শাহারবানু চৌধুরী ভবন’। চারতলা ফাউন্ডেশনের ২তলার কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে।
মঙ্গলবার দুপুরে তা উদ্বোধন করতে এসেছিলেন অর্থমন্ত্রীসহ তার পরিবারের সদস্যরা।
এসময় ড. মোমেন এ তথ্য উপস্থাপন করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Developed by: