ad3

Monday, 27 March, 2017 | ১৩ চৈত্র ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
‘আতিয়া মহলে’ অভিযান চলছে, গুলি-বিস্ফোরণের শব্দ  » «   সিলেটজুড়ে স্বজনদের আহাজারি  » «   সিলেটে জঙ্গি আস্তানায় ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’-এর এক্সক্লুসিভ ভিডিও  » «   আতিয়া মহলে দুই জঙ্গি নিহত, অভিযান চলবে  » «   থেমে থেমে চলছে গোলাগুলি ও শক্তিশালী বিস্ফোরণ  » «   আতিয়া মহলের জঙ্গি আস্তানায় বড় জঙ্গি থাকতে পারে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   মহান স্বাধীনতা দিবস আজ  » «   সিলেটে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬ আইএসের দায় স্বীকার  » «   চুয়াডাঙ্গায় ট্রাক-নসিমন মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১০  » «   জঙ্গি আস্তানার পাশে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৩  » «   আতিয়া মহলে’র ২০০ গজ সামনে‘আত্মঘাতী’ হামলা, আহত ৬  » «   আতিয়া মহলের চারিদিকে বিস্ফোরকের ফাঁদ!  » «   এখনো থেমে থেমে গুলি-বিস্ফোরণের শব্দ ভেসে আসছে  » «   শিববাড়িতে অভিযান দেখতে গিয়ে গুলিতে আহত ১  » «   শেষ মুহুর্তের অভিযান চলছে: বিস্ফোরণ ও গুলির শব্দ  » «  





চুল পড়ার কারণ ও প্রতিকার

w1দৈনিকসিলেটডেস্ক: অহনার বয়স ২৪ বছর। বছর দুয়েক আগে সে একটি ছেলে সন্তান প্রসব করে। এখন চুল আঁচড়াতে গেলেই মন খারাপ হয়ে যায়। চিরুনির সঙ্গে উঠে আসছে গোছা গোছা চুল। মাথা প্রায় খালি হয়ে যাচ্ছে। কী করবে বুঝতে পারছে না অহনা। এমন সমস্যা কখনও হয়নি। অন্যদিকে জামানের বয়স ২০ বছর। এবার খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় জীবন। পড়ালেখা, বন্ধুবান্ধব সব মিলিয়ে জামান খুব ভালো আছে। কিন্তু ছুটিতে বাড়ি যাওয়ার পর বড় বোন জানাল, জামানের মাথার চুল নাকি কমে যাচ্ছে। ব্যাপারটা জামান নিজেও লক্ষ্য করেছে। কিন্তু গুরুত্ব দেয়নি। বোনের কথা শুনে ভালো করে খেয়াল করল এবং তার মনে আশঙ্কা জাগল যে, এভাবে চুল পড়তে থাকলে মাথায় টাক পড়তে বেশি সময় লাগবে না। জামানের প্রশ্ন এখন সে কী করবে— অহনা এবং জামানের সমস্যার কথা জানা গেল। প্রথমে আসা যাক অহনার কথায়। সন্তান প্রসবোত্তর সময়ে অনেক মহিলাই এমন বিরক্তিকর ঘটনার সম্মুখীন হন। নানা রকম শরীরবৃত্তীয় পরিবর্তনের কারণে এ সময় চুল পড়ে। এসময় প্রয়োজন চুলের সঠিক যত্ন। খুব বেশি চুল পড়তে থাকলে চিকিৎসকের নির্দেশ মেনে চলা প্রয়োজন। কারণ মাথা একবার ফাঁকা হয়ে গেলে চিকিৎসা করা কঠিন। এ ব্যাপারে লক্ষ্য রাখবেন। অন্যদিকে জামানের সমস্যার ব্যাপারে লক্ষ্য করবেন সে খুলনায় যাওয়ার পর তার চুলের সমস্যা হচ্ছে। এটি হয় স্থান পরিবর্তন করলে পানির কারণে। একেক জায়গার পানিতে মিনারেলের পরিমাণ একেক রকম থাকে। এর প্রভাব চুলের জন্য ক্ষতিকর হলে তখন চুল পড়তে শুরু করে। এক্ষেত্রে কিছুদিন পুকুরের পানি কিংবা সিদ্ধপানি চুল ধোয়ার কাজে ব্যবহার করা

ভালো। চুল পড়া প্রতিরোধ করতে এ অবস্থায় সঠিক যত্ন হচ্ছে না। সঠিক চিকিৎসার মাধ্যমে অ্যান্ড্রোজেনিক অ্যালেপিসিয়া বর্তমানে রোধ করা সম্ভব। অহনা ও জামানের ক্ষেত্রে সঠিকভাবে চুলের যত্নের কথা বলা হয়েছে। চুলে সঠিক শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হয়, তেল দেওয়া, আঁঁচড়ানো এসবই সঠিক যত্নের মধ্যে পড়ে। যারা প্রতিদিন ঘরের বাইরে বের হন তাদের দুয়েক দিন পরপর চুলে শ্যাম্পু করা প্রয়োজন। চুলের ধরন অনুযায়ী শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন। খুশকির জন্য অ্যান্টিড্যানড্রাফ শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন। তবে দীর্ঘদিন অ্যান্টিড্যানড্রাফ শ্যাম্পু ব্যবহারে

চুল সরু হয়। ভেজা চুল আঁচড়াবেন না বা বেশি টানাটানি না করাই ভালো। খুব টেনে চুল বাঁধা ঠিক নয়, ভেজা চুল বাঁধবেন না। অনেকে মনে করেন চুল আঁঁচড়ালে কিংবা শ্যাম্পু করলে বেশি চুল পড়ে। এটি ভুল। চুল যেটি পড়ার পড়বেই। তা হয়তো সে সময় হাত দিয়ে ধরলে উঠে আসে। এজন্য আঁঁচড়ানো, শ্যাম্পু করা বন্ধ করা ঠিক নয়।

ডা. দিদারুল আহসান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক,

আল-রাজি হাসপাতাল, ফার্মগেট, ঢাকা।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Developed by: