ad3

Saturday, 25 March, 2017 | ১১ চৈত্র ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
এবার জঙ্গিদের ফ্ল্যাটে অভিযান শুরু করেছে প্যারা কমান্ডো  » «   ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’: এ পর্যন্ত নারী শিশুসহ ৫১ জন উদ্ধার  » «   আতিয়া মহল থেকে ২০ বাসিন্দা উদ্ধার  » «   অভিযান অব্যাহত এপর্যন্ত ৫ জন কে উদ্ধার  » «   সিলেটের জঙ্গি আস্তানায় অপারেশন চলছে  » «   সিলেটে জঙ্গি আস্তানায় অপারেশন ‘স্প্রিং রেইন’ শুরু  » «   শিববাড়ির ওই বাড়িতে জঙ্গি ধরতে চুড়ান্ত অভিযান শুরু হচেছ!  » «   জঙ্গি আস্তানা ঘিরে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার মধ্যে কেটেছে সারা রাত  » «   বিমানবন্দর সড়কের গোলচত্বরে বিস্ফোরণ, নিহত ১  » «   পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে সেনাবাহিনীর একটি দল  » «   সিলেট এসে পৌঁছেছে‘সোয়াত’ টিম  » «   সিলেটের জঙ্গি আস্তানা থেকে নারীকণ্ঠে তাকবীর ধ্বনি ভেসে আসছে!  » «   দক্ষিণ সুরমার জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শুরু হবে সোয়াত এলেই  » «   দক্ষিণ সুরমার শিববাড়িতে জঙ্গি আস্তানা ঘিরে রেখেছে পুলিশ  » «   বিয়ানীবাজার পৌরসভায় আ’লীগে মনোনয়ন পেলেন আব্দুস শুকুর  » «  





যুক্তরাষ্ট্রে প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত হয়ে বাংলাদেশি তরুণী নিহত

w1দৈনিকসিলেটডেস্ক:যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত হয়ে সায়রা নূর লামিসা নামে এক বাংলাদেশি তরুণী নিহত হয়েছেন। এই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন বিমানটির অপর দুইজন আরোহী।

গত রোববার বিকেলে প্রত্যন্ত পাহাড়ি এলাকায় চার আসনের সেসনা-১৭২ বিমানটি দুর্ঘটনায় পড়ে বিধ্বস্ত হয়েছে বলে এনবিসি নিউজকে নিশ্চিত করেছে ক্যালিফোর্নিয়ার দমকল বাহিনী।

সিবিএসের প্রতিবেদনে বলা হয়, দুর্ঘটনার প্রায় ২০ ঘণ্টা পরে সায়রা নূরের মৃতদেহ উদ্ধার করে দমকল বাহিনী। ওই ঘটনায় আহত অপর দুই আরোহী নিজেরাই বিধ্বস্ত বিমান থেকে বের হন। পরে তারা মুঠোফোনে দুর্ঘটনার খবর জানিয়ে সাহায্য চেয়েছিলেন।

জানা গেছে, নিহত সায়রার বাবা বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ক্যাপ্টেন জাকির হোসেন। তাদের বাসা ঢাকার উত্তরা ৩ নং সেক্টরে। এক ভাই ও এক বোনের মধ্যে সায়রা বড়। ছোট ভাই জারিফ হোসেন (১৮) ঢাকার একটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘এ’ লেভেল সম্পন্ন করেছেন। সায়রা স্কলাসটিকা স্কুল থেকে উচ্চমাধ্যমিক শেষ করে ২০১৬ সালের মে মাসে স্টুডেন্ট ভিসায় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। সেখানে তিনি ভর্তি হন আমেরিকান ফ্লাইং একাডেমিতে। ক্যালিফোর্নিয়ার স্যানডিয়েগো শহরে তার মামার বাসায় থাকতেন সায়রা।

আমেরিকান ফ্লাইং একাডেমি সূত্রে জানা গেছে, বিধ্বস্ত বিমানটিতে দুর্ঘটনার দিন তাঁর প্রশিক্ষক ছিলেন না। তবে সহকারী দুই প্রশিক্ষকের সঙ্গে পর্যবেক্ষণমূলক উড্ডয়নে গিয়েছিলেন সায়রা। ওই সময় তিনি বিমানটির পেছনের সিটে বসা ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Developed by: