12

Thursday, 23 February, 2017 | ১১ ফাল্গুন ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
সুস্থ খাদিজা এখন বাড়ি ফেরার অপেক্ষায়  » «   বিএনপি সন্ত্রাসী সংগঠন: কানাডার আদালত  » «   ডিজিটালের ছোয়া লাগেনি সিলেট সাবরেজিস্ট্রি অফিসে  » «   নিরাপত্তা হেফাজতে সিলেটের আবিদা  » «   বাংলাদেশ উন্নতির মহাসড়কে এগিয়ে চলেছে:অর্থমন্ত্রী  » «   নিবন্ধন নিয়ে সিলেটে বনপার জরুরী সভা  » «   সৌদি থেকে ফিরলেন নবীগঞ্জের সেই ‘গৃহকর্মী’  » «   বিআরটিএ অফিসে দুদক আতঙ্ক!  » «   যুক্তরাষ্ট্রে যেতে দেওয়া হলো না বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিককে  » «   সিলেটে দশদিনব্যাপী বেঙ্গল সংস্কৃতি উৎসব শুরু হচ্ছে আজ  » «   চুরি হতে পারে আপনার আঙুলের ছাপ!  » «   এ কেমন শ্রদ্ধা?  » «   আরিফুল হক চৌধুরীকে নিয়ে সিসিক কাউন্সিলরদের শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন  » «   বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানুষের ঢল  » «  





যুক্তরাষ্ট্রে প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত হয়ে বাংলাদেশি তরুণী নিহত

w1দৈনিকসিলেটডেস্ক:যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত হয়ে সায়রা নূর লামিসা নামে এক বাংলাদেশি তরুণী নিহত হয়েছেন। এই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন বিমানটির অপর দুইজন আরোহী।

গত রোববার বিকেলে প্রত্যন্ত পাহাড়ি এলাকায় চার আসনের সেসনা-১৭২ বিমানটি দুর্ঘটনায় পড়ে বিধ্বস্ত হয়েছে বলে এনবিসি নিউজকে নিশ্চিত করেছে ক্যালিফোর্নিয়ার দমকল বাহিনী।

সিবিএসের প্রতিবেদনে বলা হয়, দুর্ঘটনার প্রায় ২০ ঘণ্টা পরে সায়রা নূরের মৃতদেহ উদ্ধার করে দমকল বাহিনী। ওই ঘটনায় আহত অপর দুই আরোহী নিজেরাই বিধ্বস্ত বিমান থেকে বের হন। পরে তারা মুঠোফোনে দুর্ঘটনার খবর জানিয়ে সাহায্য চেয়েছিলেন।

জানা গেছে, নিহত সায়রার বাবা বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ক্যাপ্টেন জাকির হোসেন। তাদের বাসা ঢাকার উত্তরা ৩ নং সেক্টরে। এক ভাই ও এক বোনের মধ্যে সায়রা বড়। ছোট ভাই জারিফ হোসেন (১৮) ঢাকার একটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘এ’ লেভেল সম্পন্ন করেছেন। সায়রা স্কলাসটিকা স্কুল থেকে উচ্চমাধ্যমিক শেষ করে ২০১৬ সালের মে মাসে স্টুডেন্ট ভিসায় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। সেখানে তিনি ভর্তি হন আমেরিকান ফ্লাইং একাডেমিতে। ক্যালিফোর্নিয়ার স্যানডিয়েগো শহরে তার মামার বাসায় থাকতেন সায়রা।

আমেরিকান ফ্লাইং একাডেমি সূত্রে জানা গেছে, বিধ্বস্ত বিমানটিতে দুর্ঘটনার দিন তাঁর প্রশিক্ষক ছিলেন না। তবে সহকারী দুই প্রশিক্ষকের সঙ্গে পর্যবেক্ষণমূলক উড্ডয়নে গিয়েছিলেন সায়রা। ওই সময় তিনি বিমানটির পেছনের সিটে বসা ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

Developed by: