Monday, 22 May, 2017 | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
সংবাদ শিরোনাম
বিয়ানীবাজার পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণ  » «   জাফংলয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় মা ও ছেলে নিহত  » «   বিয়ানীবাজারে ধর্ষণে অভিযুক্ত প্রবাসীর স্ত্রী বললেন ভিন্ন কথা  » «   সিলেটে যেভাবে ধরা পড়লো ভয়ংকর প্রতারক চক্র  » «   বাহুবলে বাস উল্টে নিহত ১ জন আহত অন্তত ২০ জন  » «   বিচারহীনতার সংস্কৃতি আমাদের অগ্রগতি থামিয়ে দিচ্ছে : রিয়াজুল হক  » «   বিয়ানীবাজারে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে প্রবাসী আটক  » «   পুলিশী তল্লাশী ও ভাংচুর অপরাজনীতির বহিঃপ্রকাশ: কাহের শামীম  » «   সিলেটে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত  » «   শাবি ছাত্রলীগ সভাপতিসহ তিন জনকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ  » «   পবিত্র মাহে রমজান মাস উপলক্ষে সিসিকের মতবিনিময় সভা  » «   সিলেটে চলছে পরিবহন ধর্মঘট চরম দুর্ভোগে সাধারণ নাগরিক  » «   রবিবার থেকে সিলেটে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘটের ডাক  » «   জৈন্তাপুরের ওসিকে প্রত্যাহারের দাবীতে ৭২ ঘন্টার আল্টিমেটাম  » «   সিলেটে পড়তে আসবে ভারতের শিক্ষার্থীরা : মেয়র আরিফ  » «  
Advertisement
Advertisement

হবিগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় সপ্তম শ্রেনির ছাত্রের মৃত্যু

হবিগঞ্জ সংবাদদাতা: হবিগঞ্জ সদর উপজেলার সুরাবই গ্রামে ভুল চিকিৎসায় সপ্তম শ্রেনীর ছাত্র আকাশ মিয়া(১৩) মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। আকাশ মিয়া শায়েস্তাগঞ্জ থানাধীন নূরপুর ইউনিয়নের সুরাবই(মোকামবাড়ি)গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে।
পরিবার সুত্রে জানা যায়, প্রায় ২০দিন আগে দাঁতের ব্যাথার জন্য সুতাং বাজারের ব্রীজ সংলগ্ন ডাক্তার বিলাল হোসেনের কাছে যাওয়া হয়, তখন বিলাল ডাক্তার দাঁত তুলে দেওয়ার জন্য বলেন। তখন থেকেই তুলে দেওয়া দাঁতের জায়গা থেকে প্রচন্ড রক্তপাত শুরু হয়।
প্রশ্ন উঠে বিলাল ডাক্তার দাঁতের ডাক্তার নয় তাহলে সে কিভাবে ১৩ বছরের একটি ছেলের দাঁত উঠান? পরের দিন যখন রক্ত বন্ধ হচ্ছে না তখন আকাশের বাবা হবিগঞ্জে এক দাঁতের ডাক্তারের কাছে যান। ডাক্তার আকাশ মিয়া কে সিলেট রেফার্ট করেন। সিলেট রাগিব আলী হাসপাতালে ৪/৫ দিন থাকার পর কর্তব্যরত ডাক্তার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। সেখানে ৩ দিন থাকার পর গত ১৫ই মে সোমবার বাড়িতে আসলে আজ মঙ্গলবার ভোর ৪টায় তার নিজ বাড়িতে মারা যায়।
স্থানীয়রা জানান, হাজী আফরাজ আলী হাইস্কুলের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্র আকাশ মিয়ার মৃত্যুতে এক হৃদয়বিদারক ঘটনা ঘটে। এমনকি সুতাং শাহজীবাজারে হাতুড়ি ডাক্তারের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে এদের অপচিকিৎসা ও ভুল প্রেসক্রিপশনে মৃত্যুর সংখ্যা ও দিনদিন বাড়তে শুরু করেছে।
এ নিয়ে সাধারণ রোগীরা চিকিৎসা বা চিকিৎসালয়ের উপর আস্থা হারিয়ে ফেলছে। চিকিৎসক ও চিকিৎসালয় সাধারণ মানুষের কাছে আতংক হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেক রোগীরা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে সুচিকিৎসার জন্য চিকিৎসকদের দারস্থ হয়ে থাকে। কিন্তু চিকিৎসকদের ব্যবস্থাপনায় অপ ও ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু ঘটে। যা রোগীসহ সাধারণ মানুষকে ভাবিয়ে তুলে।
স্থানীয়রা আরোও জানান, অতীতেও বিলাল ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় অনেকের মৃত্যু হয়েছে যা আজও মৃত্যুদের স্বজনরা সুবিচার পায়নি।
ডাক্তার বিলালের সঙ্গে আকাশ মিয়ার দাঁতে উঠানোর ব্যাপারে জানতে চাইলে ডাক্তার বিলাল বলেন, আমি আকাশের দাঁত উঠাইনি, আমি তাকে কয়েকটা ব্যথার ঔষধ দিয়ে বলছি হবিগঞ্জে যাওয়ার জন্য।
সচেতন মহলের মতে ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুর সংখ্যা কমাতে হলে হাতুড়ি চিকিৎসকদের দ্রুত বিচারের কাঠগাড়ায় আনার বিকল্প নেই। মৃত্যু আকাশের পরিবার শায়েস্তাগঞ্জ থানায় ৫৮৪ নাম্বারে একটি জিডি করলে।
এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ থানার এসআই আমিনুল ঘটনাস্থ পরিদর্শন করেন। পুলিশ মৃত্যু আকাশের বাড়িতে গিয়ে লাশের আলামত নিয়ে লাশ হবিগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেন।

Developed by: