Thursday, 15 November, 2018 | ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |
Advertisement

বিবস্ত্র হয়ে ঘুমন্ত নারীদের দেখে পালিয়ে যায় চোর!

প্রতীকী ছবি

দৈনিকসিলেটডেস্ক:বেশ কিছুদিন ধরে একই অভিযোগ আসছিল পুলিশের কাছে। ভোররাতে ঘরের দরজা খুলে ঢুকে আসে এক ব্যক্তি। বিবস্ত্র অবস্থায় ঘুমন্ত নারীদের দেখে পালিয়ে যায়। অদ্ভুত এই অভিযোগের তদন্ত শুরু করে তাজ্জব হয়ে গেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের গোয়ায়। একটি কমপ্লেক্সের বেশ কয়েকটি পরিবার একই অভিযোগ করেছে। গত তিনমাস ধরে চলছে এসব। অভিযোগে বাসিন্দারা জানিয়েছেন, তারা ঘুম থেকে উঠে দেখেন তাদের দরজা, যা রাতে বন্ধ করা ছিল সেটা খোলা। জানালাও খোলা।

তারা অভিযোগে আরও জানিয়েছেন, যে এইভাবে প্রবেশ করে সে কোনও বিশেষ উপায়ে বন্ধ করা দরজা খুলতে পারে। তবে শুধুমাত্র যেসব বাড়িতে নারী রয়েছে, শুধুমাত্র সেখানেই প্রবেশ করে সেই ব্যক্তি।

সেই ব্যক্তির বর্ণনা করতে গিয়ে নারীরা জানিয়েছেন, হাইট মাঝারি, গায়ের রঙ কালো, পরণে শুধু একটা আন্ডারওয়্যার। সেই কমপ্লেক্সের A ব্লককেই টার্গেট করেছিল। ঠিক ভোর সাড়ে ৩টে থেকে ৪ টার মধ্যেই আসে ওই ব্যক্তি।

তিনজন নারী জানিয়েছেন, তাদের অন্তর্বাস চুরি গেছে। তবে ঘরের কোনও মূল্যবান জিনিস চুরি যেতে দেখা যায়নি। তবে অনেক সময় নগদ টাকা নিতে দেখা গেছে সেই ব্যক্তিকে। এক ফ্ল্যাট থেকে চুরি গেছে ২০,০০০ টাকা। এছাড়া অন্য দুটি ফ্ল্যাট থেকে ২০০০ ও ৩০০০ টাকা চুরি গেছে। সব মিলিয়ের চুরির পরিমাণ ৩৪,০০০ টাকা।

গত ১৫ জুন এক নারী দেখেন তাদের ঘরেই তাদের পাশে শুয়ে আছে সেই ব্যক্তি। তারা উঠে পড়লেই পালিয়ে যায় সে। তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। অদ্ভুতভাবে উধাও হয়ে যায় সে। এরপর ২ সেপ্টেম্বর ২০৪ নম্বর ফ্ল্যাটে মাঝরাতে জেগে ওঠে এক দম্পতি। উঠে তারা দেখেন, একটি লোক তাদের দিকে তাকিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। এরপর ফ্ল্যাটের জানালা দিয়ে পালায় সেই ব্যক্তি। কিন্তু তার চেহারাটা স্পষ্ট দেখতে পায় এই দম্পতি।

পুলিশ এই ঘটনাকে কোনও মানসিক বিকারগ্রস্তের কাণ্ড বলেই মনে করছে। তবে এখনও পর্যন্ত কোনও কিণারা করতে পারেনি পুলিশ।

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
দৈনিক সিলেট ডট কম
২০১১

সম্পাদক: মুহিত চৌধুরী
অফিস: ২৬-২৭ হক সুপার মার্কেট, জিন্দাবাজার সিলেট
মোবাইল : ০১৭১ ২২ ৪৭ ৯০০,  Email: dainiksylhet@gmail.com

Developed by: